মহালছড়িতে মারমাদের ঐতিহ্যবাহি বিভিন্ন খেলার উদ্বোধন

মহালছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির মহালছড়িতে প্রতি বছরের ন্যায় চৈত্রসংক্রান্তির সময় মারমাদের ঐতিহ্যবাহি প্রধান উৎসব “সাংগ্রাইং” উদযাপন উপলক্ষে সিঙ্গিনালা শা

মানিকছড়ি আওয়ামীলীগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৬তম জন্মদিন পালন
মাটিরাঙা পৌর নির্বাচন: শিক্ষায় জাহাঙ্গীর সম্পদে এগিয়ে শামছুল
“ওয়াদুদ ভূইয়া ফাউন্ডেশনের” পক্ষ থেকে আর্থিক অনুদান প্রদান

মহালছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির মহালছড়িতে প্রতি বছরের ন্যায় চৈত্রসংক্রান্তির সময় মারমাদের ঐতিহ্যবাহি প্রধান উৎসব “সাংগ্রাইং” উদযাপন উপলক্ষে সিঙ্গিনালা শাপলা সংঘের উদ্যেগে মারমা সম্প্রদায়ের বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহি খেলাধূলার আয়োজন করা হয়।

১৩ এপ্রিল শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় এ খেলাধুলার উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আমেরিকান সিনিয়র সাইনটিষ্ট মংসানু মারমা’র পিতা ও সিঙ্গিনালার প্রবীণ শিক্ষক মংচাইওরী মারমা। এসময় আরো  উপস্থিত ছিলেন, শাপলা সংঘের প্রতিষ্ঠাতা মংসাগ্য মারমা, গ্রাম প্রধান থৈঅংজাই কার্বারী, মুবাছড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এর সভাপতি মংরে মারমা, সাধারণ সম্পাদক অংসাথোয়াই মারমা, শাপলা সংঘের সভাপতি আনুমং মারমা, থুইসাপ্রু মারমাসহ অনেকে। ৩দিন ব্যাপী এ খেলাধূলার মধ্যে মারমাদের একমাত্র ঐতিহ্যবাহি খেলা ‘ঘিলা খেলা’ ও ‘পানি খেলা’ অন্যতম। এছাড়াও ছোট বড় সবার জন্য বিভিন্ন ধরণের খেলাতো রয়েছে।

উল্লেখ্য, বাংলা পুরাতন বছরের বিদায় ও নববর্ষকে স্বাগত জানিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামে আদিবাসীদের আলাদা আলাদা নামে উৎসব পালন করে থাকে। চাকমারা ‘বিঝু’, মারমারা ‘সাংগ্রাইং’, ত্রিপুরারা ‘বৈসুক’। পার্বত্য চট্টগ্রামে প্রধান তিন সম্প্রদায়ের উৎসবের তিন আদ্যক্ষরকে নিয়ে বৈসাবি হিসেবে প্রতিবছর এই উৎসব পালন হয়ে আসছে।