খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমাটিরাঙ্গাশিরোনামস্লাইড নিউজ

মাটিরাঙায় দরিদ্র কন্যার দায়িত্ব নিয়ে বিয়ে দিলেন ২৩ বিজিবি

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ির মাটিরাঙায় এক দরিদ্র কন্যার দায়িত্ব নিয়ে বিয়ে দিলেন ২৩ বিজিবি। উপজেলার তবলছড়ি ইউনিয়নের গৌরাঙ্গপাড়ার দরিদ্র মেয়ের দায়িত্ব নিয়ে বিয়ে দিলেন পাহাড়ে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত সীমান্তের অতন্দ্র প্রহরী ২৩ বিজিবি যামিনীপাড়া জোন অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল এবিএম জাহিদুল করিম। প্রায় দুই শতাধিক বর যাত্রীর খাওয়া থেকে শুরু করে স্বর্ণালংকার দিয়ে ধুমধাম আয়োজনে সম্পন্ন করা হয় বর-কনের আনুষ্ঠানিকতা। বিয়ের অনুষ্ঠানের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত উপস্থিত ছিলেন ২৩ বিজিবি জোন অধিনায়ক লে. কর্নেল এবিএম জাহিদুল করিম।

কন্যার দায়গ্রস্ত পিতা মোহন মিয়ার স্বপ্ন বাস্তবায়ন হওয়ার খুশি পরিবারটি। এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন স্থানীয়রা।  তারা জানান, খাগড়াছড়ির মাটিরাঙা উপজেলার মাটিরাঙ্গা উপজেলায় তবলছড়ি গৌরাঙ্গপাড়ার বাসিন্দা হতদরিদ্র মোহন মিয়া ৬ কন্যা সন্তানের জনক। ইতিমধ্যে চার জনের বিয়ে দিয়েছেন।  ৫ম বিবাহযোগ্য মেয়ে হালিমা আক্তারের বিয়ের দিনক্ষণ চূড়ান্ত হলেও আর্থিক সংকটে পরে পরিবারটি। এমন খবরে অসহায় এই পরিবারটির পাশে দাঁড়ান বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ ২৩ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল এবিএম জাহিদুল করিম। প্রায় দুই শতাধিক বর যাত্রীর খাওয়া থেকে শুরু করে স্বর্ণালংকার ও নব দম্পতি পরিবারটি স্বাবলম্বী হওয়ার জন্য উপহার হিসেবে একটি গাভী প্রদান করা হয়।

বিজিবি’র সহায়তায় মেয়ের বিয়ে দিতে পেরে নিজে এবং তার পরিবার ভারমুক্ত বলে জানালেন কনের পিতা মোহন মিয়া। তাই খুশিতে আবেগের কমতি নেই হতদরিদ্র এ বাবার। কৃতজ্ঞতা জানালেন বিজিবি’র প্রতি।

সীমান্ত সুরক্ষার দায়িত্বের পাশাপাশি ঐসব এলাকার অস্বচ্ছল মানুষের জন্য সামাজিক ও মানবিক দায়বদ্ধতায় পাশে থেজে কাজ করছেন বলেন জানিয়েছেন বিজিবির কর্মকর্তা লে. কর্নেল এবিএম জাহিদুল করিম। সীমান্তে শান্তি, সম্প্রীতি উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি এমন মানবিক কর্মকাণ্ডকে সাদুবাদ জানিয়েছে স্থানীয়রা। ব্যাতিক্রমী এই মানবিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে ভবিষ্যতেও অসহায় মানুষের পাশে থাকবে ২৩ বিজিবি এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।