• June 20, 2024

মাটিরাঙ্গায সনাতনী সম্প্রদায়ের অংশগ্রহণের মধ্যদিয়ে দুর্গা দেবীর বিসর্জন সম্পন্ন 

 মাটিরাঙ্গায সনাতনী সম্প্রদায়ের অংশগ্রহণের মধ্যদিয়ে দুর্গা দেবীর বিসর্জন সম্পন্ন 

মাটিরাঙ্গা(খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি: মহাসষ্টীর মধ্যদিয়ে দেবী দুর্গার আগমনের পর সপ্তমী, অষ্টমী ও নবমী পুজা শেষে আসে মহাদশমী । সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে দশমী পুজার পুষ্পাঞ্জলি ভক্তবৃন্দের গ্রহনের পর ৯ : ৫৭ মিনিটে দেবী দুর্গার মাঙ্গলিক বিসর্জন অনুষ্ঠিত হয় ।

এর পর পর আগামী বছরের আমন্ত্রন জানিয়ে মা দুর্গা দেবীকে পান তেল ও সিধুর দিয়ে বিদায় জানান মাটিরাঙ্গা উপজেলার সনাতনী হাজার হাজার ভক্তবৃন্দ ।
মঙ্গলবার বিকেল ৩ টার দিকে মাটিরাঙ্গা কেন্দ্রীয় শ্রী শ্রী রক্ষাকালী মন্দিরের দুর্গোৎসব উদযাপন কমিটি ২০২৩ এর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় চৌধুরী ঘাট এলরাকায় দুর্গা দেবীর আনুষ্ঠানিক বিসর্জন কার্যক্রম সম্পাদনের মধ্যদিয়ে এ বছর দুর্গোৎসবের সমাপ্তি ঘটে ।
এ সময় সনাতনী সম্প্রদায়ের ভক্তবৃন্দরা অশ্রুসিক্ত নয়নে দেবী দুর্গাকে বিদায় জানিয়ে নিজ নিজ বাড়িতে ফিরে আসেন ।
এর আগে দুর্গাপুজার দশমীর দিন সকাল থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত ত্রিপুরা সম্প্রদায় সহ সনাতনী নানা শ্রেনিপেশার ভক্তবৃন্দ নিজ নিজ জীবনের মঙ্গলার্থে দেবীর আরাধনায নৃত্য পরিবেশন করেন ।
পরে একে অপরকে রং মাখিয়ে উল্লাস করেত করতে পরিবহনের মাধ্যমে মাটিরাঙ্গা থেকে গুইমারা বাইল্যাছড়ি ডাবল ব্রীজ এলাকার কবুতর ছড়া পর্যন্ত একটি শোভাযাত্রা বের করেন সনাতনী ভক্তবৃন্দরা ।

এরপর নিরাপত্তা কর্মী পুলিশ ও আনসার বাহিনী সদস্যদের উপস্থিতিতে দেবী দুর্গাকে শেষ বিদায় জানাতে মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের অদুরে ধলিয়া খালের চৌধুরী ঘাট নামক স্থানে যান সনাতনী ভক্তবৃন্দরা ।

দশমী বিষয়ে মাটিরাঙ্গা কেন্দ্রীয় শ্রী শ্রী রক্ষাকালী মন্দির দুর্গাপূজার উদযাপন পরিষদ ২০২৩ এর সভাপতি ব্রজলাল দে বলেন, সকলের সহযোগিতায় আমরা আমাদের এবারের দুর্গাপূজা কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই উদযাপন করতে পেরেছি । তাই প্রশাসন ও সকল সহযোগীতাকারী ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি

পাহাড়ের আলো

https://pahareralo.com

সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সর্বশেষ সংবাদ সবার আগে জানতে চোখ রাখুন পাহাড়ের আলোতে।

Related post