খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমাটিরাঙ্গাশিরোনামস্লাইড নিউজ

মাটিরাঙ্গায় যুবলীগের উদ্যোগে ১৫আগস্ট স্মরণে মিলাদ মাহফিল ও আলোচনা সভা

অন্তর মাহমুদ: মাটিরাঙ্গায় বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার উদ্যোগে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের নিহত সকল শহীদের স্মরণে মিলাদ মাহফিল ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বিকালে মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের যৌথ কার্যালয়ে মাটিরাঙা উপজেলা যুব লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. রাকিবুল হাসান’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন মাটিরাঙা উপজেলা যুব লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জহিরুল ইসলাম খোন্দকার।

পৌর যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. সোহেল আফজাল বাবু’র সঞ্চালনায় শোক সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মাটিরাঙ্গা উপজেলা শাখার সভাপতি এম হুমায়ুন মোরশেদ খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী’লীগের সাধারন সম্পাদক সুবাস চাকমা, সাবেক উপজেলা যুবলীগ সভাপতি ও মাটিরাঙা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম ও মাটিরাঙ্গা পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মো. আলাউদ্দিন লিটন প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগষ্ট স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ পরিবারের ১৮ সদস্যকে নির্মমভাবে হত্যার পরেও খুনীদের তৎপরতা থেমে যায়নি উল্লেখ করে বক্তারা বলেন, তারা গনতন্ত্রের মানসকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনাকেও হত্যার চেষ্ঠা করে। ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মাত্র সাড়ে তিন বছর হাতে সময় পেযেছিলেন যুদ্ধ বিধস্ত দেশকে পরিচালনার। এদেশকে মাত্র ৯ মাসে তিনি সংবিধান উপহার দেন। এই দেশের জন্য বঙ্গবন্ধু নিজের জীবন বাজি রেখেছিলেন। তাঁর নেতৃত্বেই ১২৬ টি দেশ স্বাধীনতার স্বীকৃতি দেয় বাংলাদেশকে। তাঁর নেতৃত্বেই আমরা জাতিসংঘ, ওআইসি ও কমনওয়েলথ এর সদস্যপদ লাভ করি। এত অল্প সময়ের মধ্যে কোনো দেশ এতটা অর্জন করতে পারেনি।

আলোচনা সভায় পৌর আওয়ামীলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক ও ৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ মোস্তফা, মাটিরাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন, উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহীন সরকার, পৌর যুবলীগের সভাপতি মোঃ মোশারফ হোসেন, মাটিরাঙ্গা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মো. বাবুল আহম্মেদ, মাটিরাঙ্গা উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি মো. হারুন মিয়া, পৌর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো: শহীদুল ইসলাম সোহাগ, খাগড়াছড়ি জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাাদক মোঃ জহির উদ্দিন ফিরোজ, মাটিরাঙ্গা উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহবায়ক মো. ওসমান গনি ও মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মো. আল আমিন ছাড়াও বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

সকালের দিকে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে মাটিরাঙ্গা সদরের দলীয় কার্যালয়ের সামনে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামী যুব লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. রাকিবুল হাসান ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মো. জহিরুল ইসলাম খোন্দকার।

সভায় প্রধান অতিথি মাটিরাঙ্গা উপজেলা আ’লীগের সভাপতি এম হুমায়ুন মোরশেদ খান বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে হত্যা করার উদ্দেশ্য ছিলো বাংলাদেশকে হত্যা করা। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ভূলন্ঠিত করে পাকিস্তানী ভাবধারায় রাষ্ট্র পরিচালনা করা। বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিদের দ্রুত দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর করার দাবি জানিয়ে বলেন, আগস্ট মাস আসলেই দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র শুরু হয়। এ সময় যুবলীগের নেতাকর্মীদের যে কোন ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় প্রস্তুত থাকার আহবান জানান তিনি।