খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমাটিরাঙ্গাশিরোনামস্লাইড নিউজ

মাটিরাঙ্গা জোনে নিরাপত্তা সম্মেলন: গুজবে কান দেয়া যাবে না

স্টাফ রিপোর্টার: “ছেলে ধরা বা কল্লা কাটা” নামক গুজবে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে। কোথাও কোথায় ঘটছে ছেলে ধরা সন্দেহে গণ পিটুনীতে মানুষ মারার ঘটনা। পার্বত্যাঞ্চলেও এর প্রভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে গত ৭জুলাই খাগড়াছড়ি’র মাটিরাঙ্গা উপজেলার নতুনপাড়া এলাকায় ছেলে ধরা সন্দেহে দুই যুবককে আটক করে তার মা ও দুইবোন ডেকে এনে নির্যাতনের ঘটনায় ভুক্তভোগী নারীর করা মামলায় ৬ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশ।

এছাড়া এলাকার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি আশংকাজনক ভাবে কমে যাওয়ায় এধরনের ঘটনা যাতে না ঘটে ও ছেলে ধরা গুজবে কান না দিয়ে সকলকে সচেতন করার লক্ষ্যে ২৮জুলাই সকালে ৩০ফিল্ড রেজিমেন্ট আর্টিলারী মাটিরাঙ্গা সেনাজোন সদরে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, জনপ্রতিনিধি হেডম্যান কারবারীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় নিরাপত্তা সম্মেলন।

মাটিরাঙ্গা সেনা জোনের সিকিউরিটি অফিসার মেজর আরেফিন মোহাম্মদ শাকিলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত নিরাপত্তা সম্মেলনে তিনি বলেন, ছেলে ধরা গুজবে কান দিয়ে কোন নিরীহ নাগরিকের জানমালের ক্ষতি করলে কঠোর হস্তে দমন করা হবে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে যারা অপচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে তাদেরকে কোন প্রকার ছাড় দেয়া হবে না বলেও জানান তিনি।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে মাটিরাঙ্গা উপজেলা চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, পৌর মেয়র সামছুল হক, ২২আনসার ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক বিকাশ চন্দ্র দাশ, মাটিরাঙ্গা উপজেলা আবাসিক মেডিকেল অফিসার ইমরান হোসেন, মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মো: সামছুদ্দিন ভুইয়া, গুইমারা থানার অফিসার ইনচার্জ বিদ্যুৎ কুমার বড়ুয়া, ইউপি চেয়ারম্যান হিরনজয় ত্রিপুরা এছাড়াও মাটিরাঙ্গা জোনের দায়িত্বপূর্ন এলাকার বিভিন্ন পাড়ার হেডম্যান-কারবারী, ইমাম, বৌদ্ধ ভিক্ষু(ভান্তে) জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।