মিঠুন চাকমা হত্যার ঘটনার ৪ দিন পর পুলিশের মামলা

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়িতে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) অন্যতম সংগঠক মিঠুন চাকমা হত্যার ৪ দিন পর অজ্ঞাতমানা ব্যক্তিকে আসামি করে মামলা করেছে পুলিশ। খাগড়াছড়ি সদর থানায় পুলিশ বাদী হয়ে এ মামলা করেছে। খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমএম সালাউদ্দিন মামলা হওয়ার বিষয়টিসাংবাদিকদের নিশ্চিত করেছেন।

৩ জানুয়ারি বুধবার খাগড়াছড়ির অর্পণাপাড়ার নিজ বাসার সামনে থেকে মোটরসাইকেলে তুলে নিয়ে হত্যা করা হয় মিঠুন চাকমাকে। হত্যার পর থেকে ইউপিডিএফের পক্ষ থেকে নব্য সৃষ্ট ইউপিডিএফ-গণতান্ত্রীকে দায়ী করা  হলেও এ অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপিডিএফ’র অর্ন্তকোন্দেলে এ হত্যাকান্ড ঘটেছে বলে পাল্টা দাবি করা হয়।

মিঠুন চাকমাকে হত্যার প্রতিবাদে শনিবার ও রোববার খাগড়াছড়িতে সকাল-সন্ধ্যা সড়ক অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছে ইউপিডিএফ। অবরোধে হামলা, আগুন ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। অবরোধকালে রোববার সকালে খাগড়াছড়ির গিরিফুল এলাকায় দুটি টমটমে আগুন দেওয়া হয় খাগড়ছড়ি বিজিপির গাড়ীতে ইট মেরে ভাংচুর করা হয়। এ ছাড়া পানছড়ি সড়কে টায়ারে আগুন দেয় অবরোধকারী।

এছাড়াও লক্ষ্মীছড়ি মানিকছড়ি সড়কে রাস্তা খুরে যানবাহন চলাচলে বন্ধ করার চেষ্টা টালায় অবরোধ কারিরা। এদিকে অবিরোধ সফল হয়েছে বলে দাবি করে ইউপিডিএফ। তবে ২দিনের আকশ্মিক এই অবরোধে হাজার হাজার পর্যটক আটকা পরে খাগড়াছড়িতে। দুর্ভোগ নেমে আসে জনসাধারণের দৈনন্দিন কর্মকান্ডে।

Read Previous

চট্টগ্রামের ত্রিরন্ত সংঘের মানিকছড়িতে বস্ত্র বিতরণ

Read Next

পোমরা সৈয়্যদবাড়ী জামে মসজিদ উদ্বোধন