মাটিরাঙ্গায় গাড়ি ভাংচুর: ১৫ নেতাকর্মী আটক, হরতালের সমর্থনে পিকেটিং, মিছিল

Homeঅন্যান্য

মাটিরাঙ্গায় গাড়ি ভাংচুর: ১৫ নেতাকর্মী আটক, হরতালের সমর্থনে পিকেটিং, মিছিল

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: বৃহস্পতিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলাকালে পিকেটিং-এর সময় খাগড়াছড়ির মাটিরাঙায় যুবদল ও ছাত্রদলের ১৫ নেতাকর্মী আটক হয়েছে। এছাড়াও হরতালের

মানিকছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগের বিক্ষোভ মিছিল
মানিকছড়িতে লিঙ্গ বৈষম্যমূলক আচরণগত দৃষ্টিভঙ্গি দূরীকরণ বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন
ওয়াদুদ ভূইয়ার নেতৃত্বে বিভাগীয় গণ-সমাবেশে নেতাকর্মীদের যোগদান

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: বৃহস্পতিবার সকাল-সন্ধ্যা হরতাল চলাকালে পিকেটিং-এর সময় খাগড়াছড়ির মাটিরাঙায় যুবদল ও ছাত্রদলের ১৫ নেতাকর্মী আটক হয়েছে। এছাড়াও হরতালের সমর্থনের জেলার বিভিন্ন স্থানে বিএনপির নেতাকর্মীরা মিছিল ও টায়ারে আগুন দিয়ে পিকেটিং করেছে। হরতালের কারণে খাগড়াছড়ি থেকে দূরপাল্লার কোন গাড়ি ছেড়ে যায়নি। আভ্যন্তরীণ সড়কেও যানবাহন চলাচল ছিল বন্ধ।
বুধবার রাতে মাটিরাঙ্গায় অন্তত ২৫টি যাত্রীবাস, প্রাইভেটকার, সিএনজি ও পণ্যবাহী ট্রাক ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। এসময় আহত হয়েছে অন্তত ১৫ জন। রাত সাড়ে ৯টার দিকে মাটিরাঙ্গা বাইল্যাছড়ির যৌথ খামার নামক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

হামলায় আহত যাত্রী ও চালকরা জানায়, সমতলের বিভিন্ন স্থান থেকে খাগড়াছড়ির উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা গাড়িগুলো বাইল্যাছড়ি যৌথ খামার এলাকায় পৌছলে ৫০/৬০ জনের একটি দল রাস্তায় গাড়ির গতিরোধ করে লাঠিপেটা ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে অন্তত ১৫টি বাস, প্রাইভেটকার, পণ্যবাহী ট্রাক, পিকআপ, সিএনজি করে ভাঙচুর ও একটি তেল বোঝাই গাড়িতে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। এসময় ব্যাপক বোমাবাজি করে দুর্বৃত্তরা। এতে যাত্রীদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এসময় কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটালে যাত্রীদের মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।
এ ঘটনায় আহতদের মধ্যে এক নারী যাত্রীও ছিল। তাকে উদ্ধার করে মাটিরাঙ্গা উপজেলা হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এছাড়াও অপর আহতরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন বলে জানা গেছে।
ঘটনার খবর পেয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে জোর তৎপরতা চালায় পুলিশ। সড়কের বিভিন্নস্থানে বাড়তি পুলিশ মোতায়েন করে। পুলিশি পাহারায় আটকে পড়া গাড়িগুলোকে গন্তব্যে নিয়ে আসা হয়েছে বলে জানা গেছে পুলিশ সূত্রে।
এদিকে ঘটনার বিষয়ে মাটিরাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)’র সাথে ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করলেও কল এড়িয়ে যান।
একই দিন রাতে খাগড়াছড়ির ফায়ার সার্ভিস এলাকা ও দীঘিনালা সড়কেও আরো ৫টি গাড়ি ভাঙচুর করে দুর্বৃত্তরা। তবে এ বিষয়ে প্রশাসনের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
অপরদিকে হরতাল চলাকালে পিকেটিংয়ের সময় খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গায় বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের ১৫ নেতাকর্মী আটক হয়েছে বলে দাবি করেছে খাগড়াছড়ি জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এম এন আবছার।
আটককৃতরা হলো- মাটিরাঙ্গার গুমতি ইউনিয়নের স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক আবদুল্লাহ আল, সদস্য মো. কাউছার মিয়া, মো. হানিফ মিয়া, আমতলী ইউনিয়ন যুবদলের আহবায়ক মো. মনির হোসেন, সদস্য আব্দুল লতিফ তবলছড়ি ইউনিয়নের ছাত্রদলের সদস্য নেতা মো. রাকিব, মো. কায়েস সরকার, মো. আয়ুব আলী, তাইন্দং ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড যুবদলের আহবায়ক শরিফুল ইসলাম, ২নং ওয়ার্ডের আহবায়ক রমজান আলী, তাইন্দং ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য্য সচিব সাদ্দাম হোসেন, তাইন্দং ইউনিয়নের সদস্য সচিব মোস্তফা কামাল, তাইন্দং ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শিহাব উদ্দিন, তবলছড়ি ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাধারণ মেহেরাফ হোসেন অপু ও গ্রিন হিল কলেজ ছাত্রদলের সাবেক আহবায়ক মো. সবুজ।