রাঙামাটিতে সাংবাদিকদের সাথে বিদায়ী পুলিশ সুপার সাথে মতবিনিময়

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি: রাঙামাটির বিদায়ী পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান বলেছেন, রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন থেকে শুরু থেকে শে

মানিকছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ্যাম্বুলেন্স’র চাবি হস্তান্তর
গুইমারায় ৬শ ইয়াবা সহ ব্যবসায়ী আটক
খাগড়াছড়িতে শিশুদের মুখে অভিযোগ শুনে সমাধানের প্রতিশ্রুতি দিলেন জেলা প্রশাসক

রাঙ্গামাটি প্রতিনিধি: রাঙামাটির বিদায়ী পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান বলেছেন, রাঙামাটি মেডিকেল কলেজ ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপন থেকে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত আমি ছিলাম। লংগদু সংঘর্ষ, বিলাইছড়ি ঘটনা প্রভৃতি চ্যালেঞ্জের সাথে মোকাবেলা করেছি। ৬মার্চ মঙ্গলবার বিকেলে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের সাথে বিদায়ী সাক্ষৎকালে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) জাহাঙ্গীর আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) রুহুল আমীন ছিদ্দিকী, রাঙামাটি প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন রুবেল, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার আল হকসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তা এবং সাংবাদিকবৃন্দ।। পুলিশ সুপার বলেন, রাঙামাটির প্রধান সমস্যা হচ্ছে গুজব। গুজবের কারণে ঘটনার ব্যাপ্তি ঘটে। রাঙামাটিতে সাধারণ ভাবে তেমন একটা ঘটনা ঘটে না। কিন্তু সামন্য ঘটনা গুজবের কারণে ব্যাপকতা পায়। তিনি জানান, গুজবে কান দিবেন না। আলোচনার মাধ্যমে অনেক সমস্যার সমাধান সম্ভব। তিনি এসময় গণমাধ্যম কর্মীদের সহযোগিতার জন্য প্রশংসা করেন।

পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান রাঙামাটিতে তিন বছর তিন মাস কর্মজীবন শেষ করে এজিপি হিসেবে পুলিশ হেডকোয়াটারে যোগদান করবেন।