রাঙ্গুনিয়ায় অসহায় পরিবারের জায়গা দখলের চেষ্টা

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি: রাঙ্গুনিয়ার পদুয়া হরিহর গ্রামে একটি অসহায় পরিবারের জায়গা দখলের অপচেষ্টা চলছে। প্রতিপক্ষের লোকজন লাঠিসোটা, দেশীয় অস্ত্র দিয়ে বিমল

ভুজপুরের গুইট্যা সেলিমের নেতৃত্বে সার্জেন্টের দোকানসহ বিভিন্ন স্থানে হামলা, আহত ৬
দুদকের মামলায় ব্যবসায়ী পিতা-পুত্র কারাগারে
আবুল কাশেম নূরীর ওপর হামলার প্রতিবাদে ফটিকছড়িতে সমাবেশ

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি: রাঙ্গুনিয়ার পদুয়া হরিহর গ্রামে একটি অসহায় পরিবারের জায়গা দখলের অপচেষ্টা চলছে। প্রতিপক্ষের লোকজন লাঠিসোটা, দেশীয় অস্ত্র দিয়ে বিমল কান্তি চৌধুরীকে নিজ ভিটা থেকে উচ্ছেদের জন্য হামলা চালিয়েছে। বিরোধীয় তপশীলোক্ত জায়গার উপর শান্তি শৃংখলা বজায় রাখতে আদালতের নির্দেশনা জারি করেন।

জানা যায়, উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নের উত্তর পদুয়া হরিহর গ্রামের বিমল কান্তি চৌধুরী খরিদাসূত্রে ৫.৬৭ শতক জায়গা ক্রয় করেন। তপসিলোক্ত ভূমির উপর বিমল কান্তি চৌধুরী টিনের ছাইনি ঘর নির্মাণ করে নিরংকুশ ভোগ দখলে স্থিত আছেন। তপশীলোক্ত সম্পত্তিতে প্রতিপক্ষ দুর্লোভের বশবর্তী হয়ে জোর জবরদস্তী মূলক ভাবে দখলের অপচেষ্টা ও বসতঘর উচ্ছেদ করার জন্য মরিয়া হয়ে উঠে।

গত ১৩ নভেম্বর প্রতিপক্ষের লোকজন লাঠিসোটা ও অবৈধ দেশীয় অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে জায়গার মালিক বিমল কান্তি চৌধুরীর উপর হামলা চালায়। বিমল কান্তি চৌধুরী পালিয়ে কোনমতে প্রাণে রক্ষা পান। জায়গার মালিক বিমল কান্তি চৌধুরী বাদী হয়ে মনোজ কুমার চৌধুরী সহ অজ্ঞাত আরো ৫/৬ জনের বিরুদ্ধে চট্টগ্রাম ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেন। বিজ্ঞ আদালত বিরোধীয় তফসীল বর্ণিত সম্পত্তিতে শান্তি শৃংখলা বজায় রাখার জন্য রাঙ্গুনিয়া থানাকে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন। শিলক তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই মীর কাশেম এর স্বাক্ষরিত একটিপত্র গত ১৯ নভেম্বর উভয়পক্ষকে সতর্কীকরণ নোটিস প্রদান করেন।