রাঙ্গুনিয়ায় যুবলীগ নেতার লাশ উদ্ধার

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি: রাঙ্গুনিয়া পৌরসভা ইছামতি গ্রামের নিজ বাড়িতে আগুনে পুড়ে অঙ্গার হয়ে যাওয়া অবস্থায় মো. আবুল হাশেম বাঁচা (৫০) নামের উপজেলা এক যুবলীগ

এতিমদের প্রতি সহযোগিতা করুণা নয় , আমাদের নৈতিক দায়িত্ব
মাইজভান্ডারী শরাফত হলো সাম্য-ভ্রাতৃত্ব-ঐক্যের -ডা. সৈয়দ দিদারুল হক মাইজভান্ডারী
রাজনৈতিক অঙ্গণে নিবেদিত রফিকুল আনোয়ার খুঁজে পাওয়া কঠিন- মন্ত্রী মোশারফ

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি: রাঙ্গুনিয়া পৌরসভা ইছামতি গ্রামের নিজ বাড়িতে আগুনে পুড়ে অঙ্গার হয়ে যাওয়া অবস্থায় মো. আবুল হাশেম বাঁচা (৫০) নামের উপজেলা এক যুবলীগ নেতার মরদেহ গতকাল শুক্রবার সকালে রাঙ্গুনিয়া থানা পুলিশ উদ্ধার করে। তালাবদ্ধ বাড়িতে যুবলীগ নেতার অস্বাভাবিক মৃত্যুতে উপজেলা জুড়ে কৌতুহল সৃষ্টি হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে গ্যাস সিলিন্ডার বিষ্ফোরণের কারনে দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। তবে স্থানীয় একটি সূত্র জানায়, স্থানীয় কোন্দলের কারনে প্রতিপক্ষ সুকৌশলে ঠান্ডামাথায় হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে। হত্যাকান্ডকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে আগুনের নাটক সাজিয়েছে। যুবলীগ নেতার মৃত্যু হত্যাকান্ড নাকি দূর্ঘটনা ব্যাপক তদন্ত চালাচ্ছেন পুলিশ প্রশাসন।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সহ সভাপতি আবুল হাশেম বাঁচা প্রতিদিনের ন্যায় গত বৃহষ্পতিবার রাতে ঘুমিয়ে পড়েন। পরিবারের সদস্যরা ঘটনার দিন রাতে বাড়িতে কেউ ছিলো না। গ্রামের প্রতিবেশীরা সকালে বাঁচার পাকা ঘরের ভেন্টিলেটর দিয়ে ধোঁয়া দেখতে পান। স্থানীয়রা অনেক ডাকাডাকির পর বাড়ির ভেতর থেকে কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে বাড়ি গেটের তালা ভেঙে যুবলীগ নেতার শয়নকক্ষে পোড়া লাশ দেখতে পান। শয়নকক্ষ আগুনে প্রায় পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এত বড় একটা ঘটনা ঘটে গেলেও প্রতিবেশীরা কেউ কিছুই জানতে পারেনি। নাম প্রকাশে অনিশ্চুক একশিক্ষক জানান, সবচেয়ে অবাক কান্ড হচ্ছে, গ্যাস বিস্ফোরণ বা দূর্ঘটনা হলে তো বিকট শব্দ হত। এলাকাবাসী কোন কিছুই টের পাইনি। তাই এটিকে অনেকে স্বাভাবিক মৃত্যু হিসেবে মেনে নিতে পারছে না। প্রকৃত ঘটনা উম্মোচনে পুলিশের উর্দ্ধতন মহলের তদন্ত কমিটি দাবী করেছে গ্রামবাসী। রাঙ্গুনিয়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা দুলাল কুমার মিত্র এ প্রতিবেদক বলেন, পুরো বিষয়টি জটিল মনে হচ্ছে।

রাঙ্গুনিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ইমতিয়াজ মো. আহসানুল কাদের ভুঞা বলেন, পোড়া লাশ উদ্ধার করে পোষ্ট মর্টেমের জন্য চমেক হাসপাতালে প্ররেণ করা হয়েছে। তদন্তের পরে বিস্তারিত জানা যাবে।