রাঙ্গুনিয়া ফরেষ্টের জায়গায় নির্মাণাধীন পাকা ঘর উচ্ছেদ

শান্তি রঞ্জন চাকমা: রাঙ্গুনিয়া উপজেলার সোনারগাঁও কোয়ের ডেবা এলাকায় ফরেষ্টের জায়গার উপর নির্মাণাধীন পাকা ঘর গুড়িয়ে দিয়ে উচ্ছেদ করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে ইছামতি রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. খসরুল আমিনের নেতৃত্বে বন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অভিযান চালিয়ে প্রায় দেড় একর মূল্যবান জায়গা উদ্ধার করে।

জানা যায়, রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ইছামতি রেঞ্জের আওতায় নিশ্চিন্তাপুর বিটের সোনারগাঁও কোয়ের ডেবা এলাকায় ফরেষ্টের জায়গা দখল করে জনৈক মোহাম্মদ কামাল পাকা বিল্ডিং ঘর নির্মাণ করছিলেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চট্টগ্রাম উত্তর বন বিভাগের সদর রেঞ্জের ষ্পেশাল টিমের সহযোগীতায় ইছামতি রেঞ্জ কর্মকর্তা, নিশ্চিন্তাপুর বিট কর্মকর্তা, বগাবিলি বিট কর্মকর্তা, ইছামতি সদর বিট কর্মকর্তার অভিযান চালিয়ে নির্মাণাধীন পাকা ঘর ও চারপাশে কাটা তারে সীমানা প্রাচীর গুড়িয়ে দিয়ে উচ্ছেদ করা হয়।

সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন ধরে স্থানীয় একটি চক্র সরকারী বন বিভাগের মূল্যবান সম্পদ গাছ উজার করার পর উক্ত জায়গা জবরদখল করে বাড়ি নির্মাণ করে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে বিক্রি করছে। বন বিভাগের বাঁধা উপেক্ষা করে চক্রটি পাহাড়-টিলা কেটে সরকারী জায়গা দখলে নিচ্ছে।
ইছামতি রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. খসরুল আমিন বলেন, ফরেষ্টের জায়গায় নির্মাণাধীন অবৈধ পাকা ঘর গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। রির্জাভ ফরেষ্টের জায়গা রক্ষায় যৌথ অভিযান পরিচালনা করা হবে। এ ঘটনায় বন বিভাগের বিভাগীয় বন মামলা করা হয়েছে।

পাহাড়ের আলো

https://pahareralo.com

সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সর্বশেষ সংবাদ সবার আগে জানতে চোখ রাখুন পাহাড়ের আলোতে।

Related post