খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদরামগড়শিরোনামস্লাইড নিউজ

রামগড়ে চাঁদা না পেয়ে লেকের বাঁধ কেটে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা

রামগড় প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলার রামগড়ে একটি ব্যক্তি মালিকানাধীন বাগানের মৎস্য খামারের বাঁধ কেটে দিয়েছে ইউপিডিএফ সন্ত্রাসীরা। এতে খামারের প্রায় ২০ লক্ষ টাকার বিভিন্ন মাছ ভেসে গেছে। অভিযোগ উঠেছে বাগানের বাৎসরিক চাঁদা পরিশোধে বিলম্বের কারণে বাঁধটি কেটে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পাতাছড়া ইউনিয়নের ৫ নং ওয়ার্ডের তৈচাকমাপাড়া এলাকায় অবস্থিত জিবি হর্টিকালচার (চিটাইংগা বাগান) নামে সম্মিলিত ব্যক্তি মালিকানাধীন বাগানে ৩-৪ একরের একটি বিশাল জলাশয় রয়েছে। পাহাড়ের ঝিঁরিতে বাঁধ দিয়ে তৈরি করা কৃত্রিম জলাশয়ে মাছের খামার করেছেন মালিকরা। গত রবিবার ভোর ৫ টার দিকে প্রায় ৫০ ফুট লম্বা ও ২০ ফুট উচ্চতার এ বাঁধটি কেটে দেয়া হয়। ফলে বিশালা এ খামারের বিপুল পরিমান মাছ জলে ভেসে যায়।

জানা গেছে, বাঁধ কেটে দেয়ার সাথে সাথে ২০১০ সালে সৃষ্ট এ খামারের বিভিন্ন জাতের প্রায় ২০ লক্ষ টাকার মাছ ভেসে গেছে। অভিযোগ পাওয়া গেছে, সন্ত্রাসীরা বাঁধ কেটে দিয়ে প্রচুর পরিমাণ মাছও ধরে নিয়ে গেছে।
স্থানীয় বাঙ্গালীরা জানান, চিটাইংগা বাগান নামে এ বাগানটির মালিক চট্টগ্র্রাামে থাকেন। অন্যসব বাগানের মত এ বাগানের মালিককেও  উপজাতীয় সন্ত্রাসীরা নির্ধারিত হারে বাৎসরিক চাঁদা দিতে হয়। প্রতি বছর  জুন মাসে বাৎসরিক চাঁদা পরিশোধ করে সংগঠনগুলোর কাছ থেকে নতুন টোকেন সংগ্রহ করতে হয়। বাগানের মালিক পক্ষ  বাৎসরিক এ চাঁদা পরিশোধ না করায় আর্থিক ক্ষতিগ্রস্ত করার জন্য সন্ত্রাসীরা মৎস্য খামারের বাঁধটি কেটে দেয়।

রামগড় থানাধীন নাকাপা পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ  এস.আই. মো. মহিউদ্দিন জানান, বাঁধ কাটার খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন, এ ব্যাপারে মামলা করতে সংশ্লিষ্টদের পরামর্শ দেয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি। তবে প্রকৃত পক্ষে এ ঘটনার সাথে কারা জড়িত এ বিষয়ে স্পষ্ট করে কারো বক্তব্য পাওয়া যায় নি।