খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদরামগড়শিরোনামস্লাইড নিউজ

রামগড়ে ৪র্থ দিনের লকডাউনে কঠোর অবস্থান, প্রয়োজন ছাড়া বের হলেই অর্থদন্ড

রামগড় প্রতিনিধি: করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে রবিবার (৪ জুলাই) সকাল ৬টা থেকে রামগড় উপজেলায়  কঠোর লক ডাউনের কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। অপরদিকে- সরকার ঘোষিত লকডাউনের নির্দেশনা বাস্তবায়নে কঠোর অবস্থানে মাঠে রয়েছে প্রশাসনসহ আইন-শৃংখলা বাহিনী। ইতিমধ্যে রামগড় থানা পুলিশ পৌর শহরের বিভিন্ন এলাকায় ও উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্তে পুলিশ-আনসার ভিডিপি সদস্যদের নিয়ে চেক পোস্ট বসিয়েছেন। প্রশাসন ও পুলিশের ভ্র্যাম্যমান টিম উপজেলার বিভিন্নস্থানে টহল দিয়ে নজরদারি করছেন। পাশাপাশি সেনাবাহিনী ও বিজিবিসহ আনসার ভিডিভি সদস্যদের দায়িত্ব পালন করতে দেখা গেছে।
রামগড়ে সাপ্তাহিক বড় বাজার হওয়ায় ৪র্থ দিনের লকডাউনে সকালে রামগড় পৌর শহরে মানুষ জনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাজার করে যেতে দেখলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে পৌর শহরের ভিতর তেমন লোক দেখা যায়নি। তবে বাজারে কাঁচা বাজার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকান পাঠ খোলা রয়েছে। রিক্সা টমটম ছাড়া অন্য কোন যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায়নি। জরুরী প্রয়োজনে সাধারণ মানুষ এবং ব্যক্তিগত যানবাহন নিয়ে বের হলেও প্রশাসনের কঠোর জবাবদিহিতার মধ্যে পড়তে হচ্ছে অনেকের।
রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ সামসুজ্জামান বলেন, সরকার ঘোষিত সকল নির্দেশনা যথাযথ ভাবে বাস্তবায়নের লক্ষে আমরা আইন-শৃংখলা বাহিনী বদ্ধপরিকর।  এ বিষয়ে  প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাহিরে বের না হওয়ার জন্য সকলকে অনুরোধ জানান তিনি।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার মু. মাহমুদ উল্লাহ মারুফ বলেন, সাত দিনের কঠোর লকডাউনে সকলকে সরকারী নির্দেশানা মেনে চলার আহবান জানিয়ে তিনি আরো বলেন যারা জারিকৃত লকডাউন অমান্য করবে তাদের অর্থদন্ডসহ প্রয়োজনীয় শাস্তি ভোগ করতে হবে। এ বিষয়ে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না বলে জানান।
এসময় সরেজমিনে কাজ করছেন উপজেলা চেয়ারম্যান বিশ্ব প্রদীপ ককুমার কার্বারী, ইউএনও মু. মাহমুদ উল্লাহ মারুফ, সহকারী কমিশনার(ভূমি) শিরিন আক্তার,রামগড় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব হোসাইন মোহাম্মদ রায়হান কাজেমী -বিপিএম সেবা ও রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ সামসুজ্জামান ও ওসি (তদন্ত) রাজীব চন্দ্র কর,  এবং সেনাবাহিনী- বিজিবি- আনসার ভিডিপিসহ আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্যগন বৃষ্টি উপেক্ষা করে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।