লংগদুতে একাদশ জাতীয় নির্বাচনের হালচাল

মোঃ আব্দুর রহীম,লংগদু (রাঙামাটি): গত ১০ বছরে লঙ্গদু উপজলোয় ব্যাপক উন্নয়ন হয়ছে। তাই সরকারের উন্নয়নের ধারাবহিকতা বজায় রাখার জন্য নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার

মহালছড়িতে নব নির্বাচিত সরকার দলীয় বিজয়ী চেয়ারম্যানদের সংবর্ধনা
রামগড়ে আত্ম-কর্মসংস্থানে বিউটিফিকেশন প্রশিক্ষণে সার্টিফিকেট বিতরণ
রামগড়ে কোভিড-১৯ টিকাদান কমসূচির উদ্বোধন

মোঃ আব্দুর রহীম,লংগদু (রাঙামাটি): গত ১০ বছরে লঙ্গদু উপজলোয় ব্যাপক উন্নয়ন হয়ছে। তাই সরকারের উন্নয়নের ধারাবহিকতা বজায় রাখার জন্য নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার আহবান জনান আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী সাবেক প্রতিমন্ত্রী দিপংকর তালুকদার ।
উপমন্ত্রী মনি স্বপন দেওয়ান বলেন,পাহাড়ের বাতাস এখন ধানের শীষের পক্ষে বইতে শুরু করেছে। তাই ক্ষমতাসীনদের মাথায় গন্ডগোল দেখা দিয়েছে । দেশের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে আপোষহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে আগামী ৩০শে ডিসেম্বর ধানের শীষে আপনাদের মূল্যবান ভোট প্রদান করুন। সারা দেশের ন্যায় রাঙামাটির জেলার লংগদু উপজেলায়ও চলছে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রচার-প্রচারনা কাজ ।রাঙামাটি জেলায় ২৯৯ নং সংসদীয় আসন ১টি ।এ আসনে সর্বশেষ বৈধ প্রার্থী ৬জন আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী সাবেক প্রতিমন্ত্রী দিপংকর তালুকদার, (নৌকা) বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্টে মনোনীত প্রার্থী সাবেক উপমন্ত্রী বাবু মনি স্বপন দেওয়ান,(ধানের শীষ) এছাড়াও জাতীয় পার্টিও মনোনীত প্রার্থী এড.পারভেজ তালুকদার,(লাঙ্গল) বিপ্লবী ওয়ার্কাস পার্টির মনোনীত প্রার্থী জুই চাকমা, কোদাল)স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য উসাতন তালুকদার(সিংহ),ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর মনোনীত প্রার্থী জসিম উদ্দিন (হাত পাখা) প্রতীকে প্রার্থীরা নিজ নিজ দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে প্রচার-প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। প্রচার-প্রচারনার অংশ হিসেবে বড় দুই দলের প্রার্থী এরই মধ্যে লংগদু উপজেলায় প্রচার-প্রচারনা শেষ করেন।

আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী দীপংকর তালুকদার ১২ ডিসেম্বর বুধবার থেকে ১৪ ডিসেম্বর শুক্রবার পর্যন্ত লংগদু উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডে পথসভা, উঠান বৈঠক,ও গণসংযোগ করেন। এসময় কালাপাকুইজ্জা,গাথাঁছড়া, বগাচতর ,ভাসাস্যাদম,তিনব্রিজ বটতলাসহ বিভিন্ন এলাকায় পথসভা করেন। এছাড়াও গণসংযোগ করেন উপজেলার বিভিন্ন পাড়া- মহল্লায়। এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন রাঙ্গামাটি সংরক্ষিত আসনের সাংসদ ফিরোজা বেগম (চিনু), জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হাজী কামাল উদ্দিন জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জ্যোতিময় চাকমা কেরলসহ জেলা ও উপজেলা নেতৃবৃন্দ। দীপংকর তালুকদার বলেন, গত ১০ বছরে লঙ্গদু উপজলোয় ব্যাপক উন্নয়ন হয়ছেে ।তাই তনিি সরকারের উন্নয়নের ধারাবহিকতা বজায় রাখার জন্য নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার আহবান জনান। তিনি আরো বলেন মনি স্বপন দেওয়ান পাঁচ বছর ক্ষমতায় থাকাকালীন একটি ইটও কোথাও লাগাতে পারেনি। তাই তাকে জণগন ভোট দেবেনা।
এরপর ১৭ডিসেম্বর সোমবার থেকে ১৮ডিসেম্বর মঙ্গলবার পর্যন্ত লংগদু উপজেলার প্রচার-প্রচারনায় আসেন বিএনপি প্রার্থী সাবেক উপমন্ত্রী মনিস্বপন দেওয়ান। তিনি ভাসাইন্যাদম, বগাচতর, খাগড়াছড়ি বাজার, গুলশাখালী, গাথাঁছড়া, করল্যাছড়ি বাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় পথসভা করেন। এছাড়াও উপজেলার বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় গণসংযোগ,উঠান বৈঠকে অংশ নেয়। এসময় মনি স্বপন দেওয়ান বলেন পাহাড়ের বাতাস এখন ধানের শীষের পক্ষে বইতে শুরু করেছে। তাই ক্ষমতাসীনদের মাথায় গন্ডগোল দেখা দিয়েছে । ২৯৯ নং রাঙামাটি আসনের ধানের শীষ তথা জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের প্রার্থী সাবেক উপমন্ত্রী মনিস্বপন দেওয়ান আরো বলেন দেশের গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে আপোষহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে আগামী ৩০শে ডিসেম্বর ধানের শীষে আপনাদের মূল্যবান ভোট প্রদান করুন।

নির্বাচনী প্রচারিভাযানে গিয়ে মনিস্বপন দেওয়ান অভিযোগ করে বলেন সারাদেশের ন্যায় লংগদু উপজেলায়ও ধানের শীষের নেতা কর্মীদের হুমকি ধামকি এবং মিথ্যা মামলা দেওয়া হচ্ছে । তিনি বলেন মামলা হামলা করে ধানের শীষের বিজয় ঠেকাতে পারবেনা। মনি স্বপন দেওয়ান উপজেলাবাসীর প্রতি আহবান জানিয়ে আরো বলেন, সারাদেশের ন্যায় পাহাড়ের জনগণও বহু বছর পর তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরে পাওয়ার একটি সুযোগ পেয়েছে। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় সন্ত্রাস-চাঁদাবাজ, লুন্ঠনকারি বাকশালীদের বিদায়ে ব্যালটের মাধ্যমে উচিত জবাব দিতে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের আহবানে সাড়া দিতে হবে ।

এসময় কেন্দ্রীয় বিএনপির সহধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট দীপেন দেওয়ান, রাঙামাটি জেলা বিএনপির সভাপতি হাজী মোঃ শাহআলম, জেলা জামায়াতের আমীর অধ্যাপক আব্দুল আলীম, লংগদু উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ তোফাজ্জল হোসেন, রাঙামাটি জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ন সম্পাদক এ্যাডভোকেট মামুনুর রশীদ, রাঙামাটি জেলা- জামায়াত নেতা এ্যাডভোকেট হারুনুর রশিদ, জিয়া পরিষদের সভাপতি মানস মুকুর চাকমা। এছাড়া নানিয়ারচর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান, বাঘাইছড়ি পৌরসভার সাবেক মেয়র আলমগীর কবির, ১নং আটারকছড়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান বাবু মঙ্গল কান্তি চাকমা, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ফারুক আহাম্মেদ সাব্বিরসহ জেলা ও উপজেলা বিএনপি, অঙ্গ-সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন
স্থানীয় ভোটাররা বলেন যে উন্নয়ন মূলক কাজ করবে,এলাকায় মাদকমুক্ত করবে তাকেই আমরা ভোট দেবো। অনেকে সুষ্ঠ,শান্তি পূর্নভাবে ভোট প্রদান করতে পারবে কিনা তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছে । এদিকে আজ নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনায় আসছেন বাংলাদেশ ইসলামী আন্দোলনের মনোনীত প্রার্থী মাওলানা জসিম উদ্দিন। তিনি তার নেতা-কর্মীদের নিয়ে ভাসাইন্যাদম ইউনিয়ন থেকে প্রচার-প্রচারনা, পথসভা,ও গণসংযোগ শুরু করেছেন।