খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদলক্ষ্মীছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

লক্ষ্মীছড়িতে গনতান্ত্রিক সংগঠনের উদ্যোগে মিছিল ও প্রতিবাদ

ডেস্ক রিপোর্ট: “বাঙালি জাতীয়তাবাদ চাপিয়ে দেওয়ার এক দশক” নতুন সংবিধানের দাবিতে লক্ষ্মীছড়িতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে পিসিপি,ডিওয়াইএফ ও এইচডব্লিউএফ। লক্ষীছড়ি,বানরকাটা ও বাইন্যাছোলায় প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পিসিপি লক্ষীছড়ি উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক জুয়েল চাকমা, পিসিপি কেন্দ্রীয় সদস্য অমিত চাকমা, ডিওয়াইএফ কেন্দ্রীয় সদস্য কেমরন চাকমা।

বানরকাটা সমাবেশে বক্তব্য রাখেন পিসিপি লক্ষীছড়ি উপজেলা সভাপতি রুপান্ত চাকমা, সদস্য রিটেন চাকমা ও পিসিপি কেন্দ্রীয় সদস্য তুলতুল চাকমা। এছাড়াও বাইন্যাছোলা সমাবেশে বক্তব্য রাখেন লক্ষীছড়ি ডিওয়াইএফ সভাপতি উৎপল চাকমা, পিসিপি ঢাকা শাখার সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অর্নব চাকমা,এইচডব্লিউএফ এর উপজেলা দপ্তর সম্পাদক জেকি চাকমা প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনী বাতিল করে নতুন সংবিধান প্রনয়ন এবং দেশের সকল জাতিগোষ্ঠীর তাদের জাতীয় পরিচয় স্বীকৃতি সহ পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগনের রাজনৈতিক অধিকার পূর্নস্বায়ত্তশাসন দেওয়ার দাবি জানান। অন্যথায় পার্বত্য চট্টগ্রামের জনগন তাদের জাতির স্বীকৃতি এবং পূর্নস্বায়ত্তশাসন লড়াইয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলার হুমকি দেন।

উল্লেখ্য ২০১১ সালের ৩০ শে জুন সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনী মাধ্যমে বাংলাদেশের বাঙালি ভিন্ন সকল জাতিগোষ্ঠীর জাতীয় পরিচয় বিলুপ্ত করে সকলকে বাঙালি বলে আখ্যায়িত করে। সংবিধানের ৬(খ) অনুচ্ছেদ অনুসারে,বাংলাদেশের সকল জনগন বাঙালি জাতি এবং নাগরিকগন বাংলাদেশী বলিয়া পরিচিত হইবেন।যাহা বাঙালি ভিন্ন অন্যান্য সকল জাতিগোষ্ঠীর তাদের অস্তিত্বের জন্য হুমকিস্বরূপ। সেই থেকে পার্বত্য চট্টগ্রামের জুম্ম জনগণ তাদের জাতির স্বীকৃতির জন্য মানববন্ধন, সংবিধানকে লাল কার্ড, বিক্ষোভ মিছিল সহ বিভিন্ন প্রতিবাদ জানিয়ে আসছে।-প্রেস বিজ্ঞপ্তি।