ইউপি নির্বাচনখাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদলক্ষ্মীছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

লক্ষ্মীছড়িতে চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন নারী প্রার্থী জয়া চাকমা

মোবারক হোসেন: জয়া চাকমা। অনেকে আবার জয়মালা চাকমা নামেও চেনে। পর পর দুইবারের লক্ষ্মীছড়ি ইউনিয়নের ১,২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য নির্বাচি হয়েছেন ভোটের মাধ্যমে। ২০১১ সাল থেকে জনপ্রতিনিধি হিসেবে সকলের পরিচিত মুখ জয়া চাকমা। সাধারণ ঘরের মেয়ে হয়েও জীবন যুদ্ধে নানা প্রতিকুলতার মাঝেও এগিয়ে গেছেন জয়া চাকমা। প্রতিবাদী এই নারী ঘরের চার দেয়ালের কোন ছেড়ে ঘুরে বেড়িয়েছেন সমাজের নানা কাজে। সামাজিক নানা সংকটময় সময়ে নারীদের নিয়ে সামনের সারিতে কথা বলেছেন এই জয়া চাকমা। নিজেকে আর পাড়া বা মহল্লার মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখতে চান না। এবার নেতৃত্ব দিতে চান পুরো ইউনিয়ন জুড়ে। তাই তো এবার ভোটযুদ্ধে নেমেছেন চেয়ারম্যান পদে। চশমা প্রতীক নিয়ে লড়বেন সরকার দলীয় প্রার্থী নৌকা প্রতীকের প্রার্থী উষাজাই চৌধুরীর সাথে। আরো প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী আছেন ২জন বর্তমান চেয়ারম্যান আনারস প্রতীকের প্রবিল কুমার চাকমা এবং স্বপন চাকমা মোটরসাইকেল প্রতীকের আরো এক স্বতন্ত্র প্রার্থী।

বর্তমান জেলা পরিষদ সদস্য লক্ষ্মীছড়ি আওয়ামীলীগের সভাপতি রেম্রাচাই চৌধুরী আপন ভাতিজা হিসেবে কাকা যেমন রয়েছেন পাশে তেমনী উপজেলা চেয়ারম্যান আওয়ামীলীগের আরো এক সিনিয়র নেতা বাবুল চৌধুরীও রয়েছেন উষাজাই চৌধুরীর পাশে। বিজয় ছিনিয়ে আনতে জয়ের প্রত্যাশায় মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন উষাজাই চৌধুরীর পক্ষে নৌকা প্রতীক নিয়ে। সরকারের ধারাবাহিক উন্নয়ন বিবেচনায় জয় আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী উষাজাই চৌধুরীর হবে এমনটাই আশাবাদী নেতা-কর্মীরা।

উপজেলার এক মাত্র নারী প্রার্থী জয়া চাকমার ভরসা পর পর দুইবার জনপ্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করে আসছি। চেষ্টা করেছি মানুষের উপকার করার জন্য। যেখানে যাচ্ছি সেখানেই বিপুল সারা পাচ্ছি। জয় আমার পক্ষেই আসবে আমি তা বিশ^াস করি। তিনি এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, আমি বিজয়ী হলে নারী ও শিশুদের নিয়ে মানুষের কল্যাণে কাজ করবো।

এদিকে আর এক শক্ত প্রতিদ্বন্ধি স্বতন্ত্র প্রার্থী বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যান প্রবিল কুমার চাকমা। তবে ভোটের মেরুকরণে কিছুটা শংকায় প্রবিল কুমার চাকমা। কেননা সরকার দলীয় প্রার্থীর নৌকা প্রতীকের নির্বাচন থাকায় ভগ্নিপতি উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুল চৌধুরীকে এবার পাশে পাচ্ছেন না আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রবিল কুমার চাকমা। যেমনটা পেয়েছিলেন বিগত নির্বাচনে। তবে সূত্রমতে আঞ্চলিক দল ইউপিডিএফ’র সমর্থন তাঁর পক্ষে রয়েছে বলে লোকমুখে শোনা যাচ্ছে। তবে সব শংকাই দুর কওে দিয়ে প্রবিল কুমার চাকমা বলেন, আমার একজন চলে গেলেও বহু আত্মীয়,স্বজন, শুভাকাংখী, কর্মী সমর্থক রয়েছে। ভোট যুদ্ধে শেষ হাসিটা আমিই হাসবো।

এদিকে প্রচারণায় অনেকটা কম দেখা গেলেও ঘরে বসে নেই আর এক মোটরসাইকেল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী স্বপন চাকমা। তাঁর ভোট ব্যাংকে যদি কেউ ভাগ বসাতে না পারে বিজয় কেউ ঠেকিয়ে রাখবে পারবে না বলে তিনি দাবি করেন। সব কিছু মিলেয়ে ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ, ভোটারদের স্বত:স্ফুর্ত অংশ গ্রহণ ফলাফলের হিসেবে-নিকেশ পাল্টে যেতে পারে বলে সাধারণ মানুষের অভিমত।

আগামী রোববার ভোট। লক্ষ্মীছড়িইউনিয়নে মোট ভোটার ৮হাজার ৮৭২জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৪হাজার ৫৮৮ এবং নারী ভোটার ৪হাজার ২৮৪টি।