ইউপি নির্বাচনখাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদলক্ষ্মীছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

লক্ষ্মীছড়িতে নির্বাচনী কন্ট্রোল রুমে হামলার ঘটনায় নৌকা প্রার্থীসহ ১৫জনের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় নির্বাচনী কন্ট্রোল রুমে হামলার ঘটনায় সরকার সমর্থীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী উষাজাই চৌধুরীসহ ১৫জনের বিরুদ্ধে লক্ষ্মীছড়ি থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের নৈশ প্রহরী মাহমুদুল হাসান সম্রাট বাদী হয়ে ৩১ ডিসেম্বর অভিযোগ দাখিলের পর পুলিশ মামলা রেকর্ড করে। মামলা নং ০১, তারিখ: ৩১.১২.২০২১ইং। মামলার এজাহারে বলা হয় গত ২৬ ডিসেম্বর নির্বাচন শেষে উপজেলা কমিউনিটি সেন্টার’র অস্থায়ী নির্বাচনী কোন্ট্রেল রুমে লাঠি-শোঠা নিয়ে নিয়ে হামলা চালায়। এ ঘটনায় ২কর্মচারী আহত হয় এবং একটি গাড়ি ভাংচুরের অভিযোগও আনা হয়। ঘটনার সময় উপজেলা রির্টানিং অফিসার ও প্রিসাইডিং অফিসারসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

লক্ষ্মীছড়ি থানার অফিসার্স ইনচার্জ হুমায়ুন কবির বলেন, অভিযোগ পাওয়ার পর মামলা রুজু করে আসামী আটকের বিষয়ে তৎপরতা চালাচ্ছি। ঘটনার সম্পর্কে তিনি বলেন, সরকার দলীয় পরাজিত প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা উত্তেজিত হয়ে কন্ট্রোল রুমের সামনে বিক্ষোভ করেছে। এসময় বিজিবি-পুলিশ ধাওয়া দিলে তারা পালিয়ে যায়। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা ও রির্টানিং অফিসার মোহাম্মদ সোহরাব হোসেন ভূইয়া বলেন, ঘটনাটি আনুমানিক ৯টার দিকে। আমরা কেন্দ্র থেকে আসা ফলাফল ঘোষণা করছি পর্যায় ক্রমে। এর মধ্যেই প্রধান ফটকে লাঠি-শোঠা দিয়ে আঘাত করার বিকট শব্দ এবং মিছিলের আওয়াজ। বিজিবি ও আনসার সদস্যরা এগিয়ে গেলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। আওয়ামীলীগের পরাজিত নৌকা প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরাই এ হামলা চালিয়েছে বলে তিনি জানান।

লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, একটি সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন শেষে চুড়ান্ত ফলাফল ঘোষণার সময় কন্ট্রোল রুমে হামলা করা অত্যন্ত অনাকাংখিত এবং দু:খজনক ঘটনা। আইনের মাধ্যমে অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত করা হবে বলে তিনি জানান।

উল্লেখ্য এই মামলায় নৌকা সমর্থীত প্রার্থী উষাজাই চৌধুরী ছাড়াও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি আবুল কালাম ও উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মো: মিজানের নামসহ ১৫জন এবং আরো অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে ১২০/১৩০জন।