লক্ষ্মীছড়িতে সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত

লক্ষ্মীছড়িতে সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে কমিউনিটি স

জোন কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট’র উদ্বোধন খাগড়াছড়িতে
রামগড়ে ৪১ লিটার মদসহ ৪ নারী আটক
অপহরণের পর ধর্ষনের অভিযোগ ইউপিডিএফ’র বিরুদ্ধে মিতালী চাকমার

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় সম্প্রীতি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে কমিউনিটি সেন্টারে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের প্রধান, রাজনৈতিক নেতাকর্মী, ইউপি চেয়ারম্যান, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক সহ বিভিন্ন ধর্ম ও গোত্রের নানা শ্রেনি পেশার মানুষ অংশ নেন।

লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ইশতিয়াক ইমন’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুল চৌধুরী, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার খন্দকার আব্দুল ওহাব, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ বিল্লাল হোসেন বেপারী, লক্ষ্মীছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ মিনহাজ মাহমুদ ভুঁইয়া, মেডিকেল অফিসার ডা. সাইদুল ইসলাম সোহেল, লক্ষ্মীছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান প্রবিল কুমার চাকমা, দুল্যাতলী ইউপি চেয়ারম্যান ত্রিলন চাকমা, বর্মাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান সুইশালা চৌধুরী, লক্ষ্মীছড়ি থানা মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা আনোয়ার উল্লাহ, লক্ষ্মীছড়ি কালি মন্দির প্রধান রনজয় কুমার সর্ববিদ্যা, কুশিনগর বনবিাহর অধ্যক্ষ নন্দ বংশ থেরো। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন উপজেলা শিক্ষা অফিসার শুভাশীষ বড়ুয়া।

সম্প্রীতি সমাবেশে বক্তারা বলেন, একে অপরের প্রতি সহনশীল মানুষিকতা তৈরী করতে হবে। কোনো ধর্মেই মানুষের অমঙ্গল কামনা করা হয়নি। মদ, জুয়াসহ সকল খারাব কাজ থেকে দুরে থাকলে সমাজ ভালো থাকবে, মানুষ ভালো থাকবে। শান্তি বিনষ্ট হয় এমন কিছুই করা যাবে না। অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধ করতে হবে। মানুষ শ্রেষ্টজীব অশুভ প্রতিযোগিতা থেকে দুরে থাকতে হবে।

উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুল চৌধুরী বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করে গুটি কয়েক ষড়যন্ত্রকারী দুষ্কৃতি ব্যক্তি। বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ। এ উপজেলায় কিছু বিচ্ছন্ন ঘটনা ঘটলেও কখনো সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট হয় নি। তিনি বলেন, ষড়যন্ত্রকারীদের প্রতিহত করে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: ইশতিয়াক ইমন বলেন,অর্থনৈতিকভাবে এ এলাকা অনেক পিছিয়ে। দেশে এগিয়ে যাচ্ছে কিন্তু আমার এলাকা পিছিয়ে থাকবে, আমরা অনেক ভালো আছি-এমনটা ভাবার সুযোগ নেই। এলাকায় যেমন শান্তি বিরাজ করছে, তেমনি এলাকার উন্নয়নের জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থেকে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে। হিন্দু- মুসলিম, ধনী-গরিব সবার পরিচয় আমরা মানুষ। সবার প্রতি ভালোবাসা দেখাতে হবে। ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে হবে।