লক্ষ্মীছড়িতে স্কুল বন্ধ রেখে শিক্ষকদের নিয়ে সভা শিক্ষা অফিসারের

লক্ষ্মীছড়িতে স্কুল বন্ধ রেখে শিক্ষকদের নিয়ে সভা শিক্ষা অফিসারের

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা শিক্ষা অফিসারের নির্দেশে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪০টি স্কুল বন্ধ রেখে বিশেষ প্রশিক্ষণ কর্মশালার আ

গুইমারায় রমজান আলী হত্যাকারীকেদের গ্রেফতারে দাবি
খাগড়াছড়িসহ সারা দেশে ৫০টি মডেল মসজিদ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
11 things that won’t happen in royal societies

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা শিক্ষা অফিসারের নির্দেশে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪০টি স্কুল বন্ধ রেখে বিশেষ প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে বলে জানা গেছে। সূত্র জানায়, গত সোমাবার বর্মাছড়ি ইউনিয়নের ১১টি স্কুলের ২৯জন শিক্ষক, দুল্যাতলী ইাউনিয়নে ১৩টি স্কুলের ৫১জন শিক্ষক এবং ১১ জানুয়ারি বুধবার লক্ষ্মীছড়ি ইউনিয়নের ১৬টি স্কুলের ৭০জন শিক্ষক নিয়ে ক্লাষ্টটার প্রোগামের নামে বিশেষ প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করেন। গত ২দিন ধরে বর্মাছড়ি ও দুল্যাতলী ইউনিয়নে এ প্রশিক্ষণ আয়োজন করা হলেও বিষয়টি ছিল অনেকটা গোপন। কিন্তু বুধবার লক্ষ্মীছড়ি ইউনিয়নের সবগুলো স্কুলের শিক্ষকদের নিয়ে মংহলাপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে একই আয়োজন শুরু হলে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়।

সংবাদ পেয়ে এ প্রতিনিধি উপজেলা শিক্ষা অফিসারের কার্যালয়ে খোঁজ নিতে গেলে কাউকেই পাওয়া যায়নি। এসময় বর্মাছড়ির ফুত্যাছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং কেরেককাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বেশ কয়েকজন শিক্ষক, শিক্ষা অফিসারের কার্যালয়ে অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। অবশেষে শিক্ষা অফিসারের দেখা না পেয়ে ফেরৎ যান। এসময় ফুত্যাছড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সুপায়ন চাকমা জানান, আমরা অনেক দুর থেকে পায়ে হেঁটে এসেছি শুভাশীষ স্যারের সাথে দেখা করতে। কেরেটকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক অমর বিকাশ চাকমা বলেন, আমরা একবার আসছি, আবার আসা অনেকটাই কষ্টসাধ্য। তাঁরা জানতেন না যে শিক্ষা স্যার আজ অফিসে থাকবেন না। উভয়ে অবশ্য বলেন স্কুল বন্ধ রেখে এ ধরনের বিশেষ প্রশিক্ষণ করার কোনো নীতিমালা আমাদের জানা নেই। তারা এর বেশি আর কিছুই বলতে চান নি। লক্ষ্মীছড়ি মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিজয় কুমার চাকমা বলেন, আজ আমাদের স্কুল বন্ধ ছিল। উপজেলা শিক্ষা অফিসারের নির্দেশে একটি সমন্বয় সভায় অংশ নিয়েছিলাম। স্কুলের ৭জন শিক্ষক সবাই সেখানে গিয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা শিক্ষা অফিসার শুভাশীষ বড়ুয়া বলেন, নিজস্ব চিন্তা-ভাবনা থেকেই শিক্ষার মান উন্নয়নে এই বিশেষ প্রশিক্ষণের আয়োজন বলে তিনি জানান। সরকারি কোনো আদেশ নির্দেশ ছাড়া স্কুল বন্ধ রেখে এ ধরনের কার্যক্রম করা যায় কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, স্কুল বন্ধ না, পাঠদান বন্ধ রেখেছি, স্কুল খোলা ছিল অল্পসময় ক্লাশ নিয়ে শিক্ষকরা প্রশিক্ষণে চলে এসেছে বলে দাবি করেন তিনি। লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: ইশতিয়াক ইমন বলেন, স্কুল বন্ধ রেখে এমন প্রশিক্ষণ আয়োজন হচ্ছে এটা আমার জানা নাই, তবে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান তিনি।

COMMENTS