উপজেলা নির্বাচনখাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদলক্ষ্মীছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা নির্বাচনে যারা সম্ভাব্য প্রার্থী

মোবারক হোসেন: জাতীয় সংসদ নির্বাচন হয়ে গেলো গত ৩০ ডিসেম্বর। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের গুঞ্জন শুরু হয়ে গেছে। সরকারের গ্রিন সিগনাল পেলে ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ে তফসিল ঘোষণার মধ্য দিয়ে ধাপে ধাপে শুরু হবে সারা দেশে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। ৪র্থ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আলোকে ২০১৪সালের ২৭ ফেব্রুয়ারী ২য় ধাপে লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এবারো হয়ত ২য় ধাপে ঘোষণা হতে পারে বলে লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা নির্বাচনের তালিখ এমনটাই ধারনা করা হচ্ছে। সারা দেশে যখন নির্বাচনের হাওয়া বইতে শুরু করেছে তখন লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা নির্বাচনে সম্ভাব্য প্রার্থীরা নিজেদের প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি নানা ভাবে জানান দিচ্ছেন। প্রস্তুতি নিচ্ছেন উপজেলা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতার জন্য।

এবারই প্রথম দলীয় প্রতীকে উপজেলা নির্বাচন হতে যাচ্ছে বিধায় প্রার্থীদের দেখা যাচ্ছে অনেকটা কৌশলী মনোভাব। ভোট বিশ্লেষন করে দেখা গেছে বিগত ২টি জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় রাজনৈতিক দলের চেয়ে আঞ্চলিক দলের প্রভাব ছিল অনেকটা বেশি। ভোটের হিসেবে আঞ্চলিক দলের ইউপিডিএফ’র স্বতন্ত্র প্রার্থীর বিজয়ের পাল্লা ভারি থাকে বরাবরই। উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ি লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় মোট ভোটার ১৮হাজার ২’শত ৯৯জন। সবশেষ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাতিলসহ মোট কাষ্টিং ভোট ছিল ১৫হাজার ৬’শ ৫৩ ভোট। ইউপিডিএফ’র প্রার্থী পেয়েছেন ৮হাজার ৫’শ ১৭ভোট, আওয়ামীলীগ প্রার্থী কুজেন্দ্রলাল ত্রিপুরা নৌকা প্রতীকে ৫হাজার ২’শ ৪৬ ভোট পান। ধানের শীষ ১হাজার ৪’শ ৭৯ পেয়ে বিএনপির অবস্থান তৃতীয়। এর আগে ২০১৪ সালে ১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ইউপিডিএফ সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী প্রসিত বিকাশ খিসা হাতি প্রতীক ৭হাজার ৬৭২ভোট পেয়ে প্রথম অবস্থানে। কুজেন্দ্রলাল ত্রিপুরা আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীক ২হাজার ৮৪৬ ভোট পেয়ে ছিল ২য় অবস্থানে। ১৫হাজার ৯০৫ ভোটের মধ্যে কাষ্টিং ভোট ছিল ১১হাজার ৭৫ভোট। সে বারে অবশ্য বিএনপি ৪দলীয় জোট নির্বাচনে অংশ নেয় নি।

বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সুপার জ্যোতি চাকমা ইউপিডিএফ’র সমর্থন নিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। জয়ের জন্য এ উপজেলার প্রার্থীদের ক্ষেত্রে এসব বিষয় মাথায় রেখেই হিসেব মিলাতে হয়। তবে দিন বদলের পরিবর্তনের হাওয়ায় সাধারণ মানুষের মনোভাবৗ অনেকটা পাল্টে যাচ্ছে। এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি, শান্তি ও সৌহার্দপূর্ণ পরিবেশ এবং মানুষের ভাগ্যোন্নয়নের জন্য যিনি কাজ করবেন তাকেই লক্ষ্মীছড়ি উপজেলার অভিভাবক হিসেবে বেঁছে নিবেন এমনটাই প্রত্যাশা এ অঞ্চলের মানুষের।

লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় কে হচ্ছেন সম্ভাব্য প্রার্থী এমন জল্পনা-কল্পনা শুরু হয়ে গেছে। অনেকে অবশ্য প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি প্রকাশ্যে ঘোষণা দিলেও আবার কেউ মুখ খুলতে নারাজ। সময় এখনো আসেনি, পরে বলবো, অবস্থা বুঝে বলবো, যদি সমর্থন পাই তাহলে নির্বাচন করবো এমন তথ্যই এ প্রতিনিধির অনুসন্ধানে উঠে এসেছে। তবে প্রকৃত পক্ষে কারা নির্বাচনের প্রতিদ্বন্ধিতায় আসছেন সে জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরো কয়েকদিন।

এদিকে দলীয় সমর্থন কিংবা আঞ্চলিক দলের সমর্থন নেয়ার জন্য অনেকেই আড়ালে চেষ্টা করছেন বলে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে। আলোচনায় ওঠে আসছে এমন কিছু প্রার্থীদের মধ্যে আত্মগোপনে থাকা বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান সুপার জ্যোতি চাকমা, সাবেক বর্মাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রয়াত উপজেলা চেয়ারম্যান রবি ভূষণ চাকমার কন্যা দেবরানী চাকমা, সাবেক লক্ষ্মীছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রাজেন্দ্র চাকমা, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও ভারপ্রাপ্ত উপজেলা চেয়ারম্যান অংগ্য প্রু মারমা, চাথোয়াই অং মারমা আপ্রুসি, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক বাবুল চৌধুরী, সাবেক বর্মাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান নিলবর্ন চাকমা, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশীদ মোল্লা, সাবেক আওয়ামীলীগ সভাপতি আবুল হাসেম চৌধুরী, সাবেক দুল্যাতলী ইউপি চেয়ারম্যান মংক্যচিং চৌধুরী, সাবেক বর্মাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান স্বপন কুমার চাকমা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক লেলিন কুমার চাকমা(কালেন্দ্র) ও সাবেক বর্মাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান প্রতুল চাকমা’র নাম শোনা যাচ্ছে।

অপরদিকে পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ঠিকাদার আবুল কালাম, আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো: নুরে আলম, ইউসিসিএলি: চেয়ারম্যান দ্বীপান্তর চাকমা রাজু, সাবেক ইউপি মেম্বার চাইলা প্রু মারমা, হেডম্যান কার্বারী এসোসিয়েশনের উপজেলা সভাপতি অসিম চাকমা, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান প্রয়াত সুনীতি কবামার চাকমার ছেলে রতন বিকাশ চাকমা, ৮০ নং দুরছড়ি মৌঝার হেডম্যান রিটন চাকমা, রতন বিকাশ চাকমা ও উচাই প্রু মারমার নাম আলোচনায় এসেছে।

এছাড়া মহিলা ভাইস জেচয়ারম্যান পদে যাদের নাম আলোচিত হচ্ছে তাদের মধ্যে বর্তমান উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বেবি রানী বসু, সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাগরিকা চাকমা, বর্তমান দুল্যাতলী ইউনিয়নের সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্যা এবং উপজেলা মহিলা লীগের সভানেত্রী কাজল আক্তার, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান প্রয়াত সুনীতি কুমার চাকমার কন্যা সুমনা চাকমা, সাবেক লক্ষ্মীছড়ি ইউনিয়নের সংরক্ষিত আসেনর মহিলা সদস্যা আঞ্জুমনোয়ারা বেগম ও উপজেলা পরিষদের সংরক্ষিত আসনের সাবেক সদস্য মেরিনা চকমার নাম সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকায় রয়েছেন।