পাহাড়ের সংবাদবান্দরবান সংবাদলামাস্লাইড নিউজ

লামায় মাসিক আইন শৃংখলা ও উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা

লামা (বান্দরবান) প্রতিনিধি: বান্দরবানের লামায় উপজেলা পরিষদের মাসিক আইন-শৃংখলা ও উন্নয়ন সমন্বয কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার খিনওয়ান নু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আইন-শৃংখলা কমিটির সভায় বক্তাগণ উদ্বেগের সাথে বলেন, রোহিঙ্গারা নিজ দেশে ফিরে যাওয়ার ভয়ে ক্যাম্প ত্যাগ করে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ঢুকে পড়ছে। সে সাথে এলাকায় চুরি ও বন উজাড় বৃদ্ধি পেয়েছে। যাত্রীবাহী মোটর সাইকেল গুলো অবৈধ ইয়াবাসহ নানা মাদক ও অস্ত্র চোরাচালান কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। পরিবেশ ধংস করে পাহাড় কেটে-খুঁড়ে ও পাহাড়ি ঝিড়ি উজাড় করে নির্বিচারে পাথর ও বালু লুটপাট চলছে অবাধে। যত্রতত্র যানবাহন পার্কিং করে যাত্রী ও মালপত্র উঠা-নামা করার ফলে সাধারনের দুর্ভোগ বাড়ছে।

রিক্সা, টমটম, সিএনজি, মাহিন্দ্র টেক্সি ও যাত্রীবাহী মোটর সাইকেলের জন্য স্টান্ড নির্ধারণের দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন গজালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বাথোয়াইচিং মার্মা, ফাশিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান জাকের আহামদ মজুমদার, আজিজনগর ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন,রুপসীপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান ছাচিংপ্রু মার্মা ও সরই ইউপি চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম। উদ্বুত পরিস্থিতি নিরসনের জন্য জনপ্রতিনিধিগণকে এলাকাবাসীর সহায়তায় মোকাবেলা করার পরামর্শ দেয়া হয়।

এদিকে উপজেলা চেয়ারম্যান থোয়াইনুঅং চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভায় উপজেলা কৃষি অফিসার নুরে আলম অভিযোগ করে বলেন, সরকার কৃষকের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও এলাকার খাদ্য উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে বিনামুল্যে সার বীজ ও পরিচর্যা ব্যয় বাবদ নগদ অর্থ বরাদ্ধ দিযে ১৮০ বিঘা ভুট্টা ও ১৯ বিঘা বিটি জাতের বেগুন চাষের জন্য লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছেন। কিন্তু উপজেলার আবাদী জমিগুলো তামাক চাষের আওতায চলে যাওয়ায় সরকারের এ মহতি উদ্যোগ বাস্তবায়ন অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে। জলাশয় ও বসতির আশপাশে তামাক চাষ নিষিদ্ধ করার উদ্যোগ নেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।