“শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান -কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, এমপি

Homeপাহাড়ের সংবাদখাগড়াছড়ি সংবাদ

“শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান -কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, এমপি

দীঘিনালা (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি: "শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। গুরুত্বের কারণেই ৩৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়কর

খাগড়াছড়িতে মারমা ছাত্র ঐক্য পরিষদের পরিচিতি সভা
মানিকছড়িতে ট্রাক্টর-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১
দীঘিনালায় ছাত্রদল নেতার উপর হামলার ঘটনায় জেলা বিএনপির নিন্দা

দীঘিনালা (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি: “শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। গুরুত্বের কারণেই ৩৬ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেছিলেন তিনি। দেশের মানুষ শিক্ষিত হলেই তারা দেশের জন্য কাজ করবে। বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীনের পরপরই সে চিন্তাটুকু করেছিলেন। বঙ্গবন্ধু ৭৩ সালে বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেছিলেন- আর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ ২০১২ সনে প্রায় ২৬ হাজার বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেন। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ সব সময় জনগনের কথা বলে, জনগনের কথা ভাবে।” শরনার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান প্রতিমন্ত্রী কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি, দীঘিনালা মডেল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের রজত জয়ন্তী ও পুনর্মিলনী উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই কথাগুলো বলেন।

১৯ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার দীঘিনালা মডেল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের রজত জয়ন্তী ও পুনর্মিলনী উৎসব উপলক্ষে আলোচনা সভায়, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি এবং ২নং বোয়ালখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাবু চয়ন বিকাশ চাকমার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, দীঘিনালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ কাশেম, বিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান শিক্ষক রঞ্জন কুমার চাকমা, চাঙমা সাংস্কৃতিক গোষ্ঠীর পরিচালক আনন্দ মোহন চাকমা, সাধন বিকাশ চাকমা, দীঘিনালা প্রেসক্লাবের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম রাজু, স্বাগত বক্তব্য রাখেন দীঘিনালা মডেল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাধন মনি চাবমা।

এর আগে সকালে বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকরা মিলে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করে। শোভাযাত্রাটি থানা বাজার এবং বঙ্গবন্ধু চত্বর প্রদক্ষিন শেষে বিদ্যালয়ে সমাবেশে মিলিত হয়। এসময় প্রধান অতিথি রজত জয়ন্তীর কেক কাটেন প্রধান অতিথি।