চট্টগ্রাম সংবাদশিরোনামস্লাইড নিউজ

সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ৫৭ ধারায় মামলা ফটিকছড়িতে

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: মানহানির অভিযোগ এনে চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার দৈনিক আজাদী পত্রিকা প্রতিনিধির বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইন সংশোধিত ২০০৬ (সংশোধিত-২০১৩) এর ৫৭ ধারায় দুটি মামলা করা হয়েছে। আদালত মামলা দুটি আমলে নিয়ে ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কে প্রয়োজনীয় ও যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন। গত ১২ মার্চ মামলাগুলো ঢাকা সাইবার ক্রাইম ট্রাইবুনাল আদালতে করলেও বিষয়টি গতকাল রোববার জানাজানি হয়। দুটি মামলায় বিবাদী করা হয়েছে চট্টগ্রাম থেকে প্রকাশিত দৈনিক আজাদীর ফটিকছড়ি উপজেলা প্রতিনিধি এম এস আকাশকে।

এক মামলার বাদী দৈনিক ইনকিলাবের ফটিকছড়ি উপজেলা সংবাদদাতা সৈয়দ জাহেদুল্লাহ কুরাইশী। অপর মামলার বাদি উপজেলার উত্তর হাইদচকিয়া গ্রামের ঠিকাদার মুহাম্মদ মহসীন হায়দার। মামলার আর্জিতে বাদী সৈয়দ জাহেদুল্লাহ কুরাইশী উল্লেখ করেন, ‘বিবাদির ব্যবহৃত ফেসবুক আইডি এবং ভুয়া একাধিক আইডি থেকে নামে বেনামে তার বিরুদ্ধে কটাক্ক করে সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যমূলকভাবে পোষ্ট দেন। এতে তাঁর সুনাম ক্ষুন্ন হয়েছে। এটি প্রচলিত আইনে জগন্য অপরাধ। তাই প্রতিকার চেয়ে আমি আদালতে মামলা করেছি। আরেক মামলার আরজিতে বাদি মুহাম্মদ মহসিন হায়দার উল্লেখ করেন, বিবাদির ব্যবহৃত ফেসবুক আইডি এবং ভুয়া একাধিক আইডি থেকে তার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের নামে কাল্পনিক, কল্পনাপ্রসূত মিথ্যা ও বানোয়ার পোষ্ট প্রদান করেন। এতে তার মানহানি হয়েছে। এর মধ্য দিয়ে বাদীর পারিবারিক, সামাজিক ও ব্যবসায়িক সম্মান ক্ষুন্ন করা হয়েছে। তাই বাদি আদালতে প্রতিকার চেয়ে মামলা করেন।

জানতে চাইলে সাংবাদিক এম এস আকাশ বলেন, আমি কারো নাম ব্যবহার করে কিংবা কারো বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যমূলকভাবে কোন পোষ্ট প্রদান করিনি। আমাকে শাসানোর জন্য একটি মহলের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে এ দুইটি মামলা করা হয়েছে।

ফটিকছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাকির হোসাইন মাহমুদ বলেন, বিষয়টি খুবই স্পর্শকাতর। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।