খাগড়াছড়িতে ৬০ লাখ টাকার ভারতীয় পণ্য উদ্ধার, এসএ পরিবহনের ৩ কর্মকর্তা আটক

খাগড়াছড়িতে ৬০ লাখ টাকার ভারতীয় পণ্য উদ্ধার, এসএ পরিবহনের ৩ কর্মকর্তা আটক

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়িতে এস. এ পরিবহনের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পাচারের সময় প্রায় ৬০ লাখ টাকার ভারতীয় পণ্য আটক করা হয়েছে।১৩ অক্টোবর বৃহস্পতিবা

মানিকছড়িতে কারিতাসের উপকারভোগীদের মাঝে উপকরণ বিতরণ
মানিকছড়িতে বিআরডিবির সফল উদ্যোক্তার মাঝে কোভিড-১৯ প্রণোদনা ঋণ বিতরণ 
চার স্তরের নিরাপত্তা বলয়: লক্ষ্মীছড়ির ১১টি কেন্দ্র ভোট গ্রহণের জন্য প্রস্তুত

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়িতে এস. এ পরিবহনের মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পাচারের সময় প্রায় ৬০ লাখ টাকার ভারতীয় পণ্য আটক করা হয়েছে।১৩ অক্টোবর বৃহস্পতিবার রাতে জেলা শহরের নারিকেল বাগাস্থ এসএ পরিবহন কাউন্টারে জেলা প্রশাসন, বিজিবি ও পুলিশের অভিযানে এই বিপুল পরিমাণ ভারতীয় পণ্য জব্দ করা হয়। এ সময় এসএ পরিবহনের তিন কর্মকর্তাকে আটক করতে সক্ষম হলেও মালামালের মালিকদের আটক করা সম্ভব হয়নি।

আটকরা হচ্ছেন, এস.এ পরিবহন খাগড়াছড়ি কার্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপক আমজাদ হোসেন, পার্সেল সহকারী বাদল হোসেন ও ঝন্টু সিংহ। খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসনের সিনিয়র সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মঞ্জুরুল আলম জানান, দীর্ঘ দিন ধরে এস.এ পরিবহনের মাধ্যমে একটি চক্র ভারত হতে অবৈধভাবে সীমান্ত পথে আনা মালামাল পাচার করে আসছিল দেশের বিভিন্ন স্থানে। বৃহস্পতিবার রাতে  গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিজিবি ও পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। আটক পণ্যের আনুমানিক বাজার মূল্য ৫৯ লাখ ৪০ হাজার টাকা।অভিযানে ১০টি বৌদ্ধমূর্তি, ১ হাজার ১১০ পিস ভারতীয় শাড়ি, ৩৪ সেট ভারতীয় চীবর, ৮৩৮ বক্স বিদেশি সিগারেট ও ২০০ পিস লুঙ্গী জব্দ করা হয়। খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো, আরিফুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় শুক্রবার ৩২-বিজিবি খাগড়াছড়ি ব্যাটালিয়নের নায়েক সুবেদার মো. শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় ৩ জনকে আটক ও অপর ৩ জনকে পলাতক দেখানো হয়েছে।
এসএ পরিবহন খাগড়াছড়ি কার্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত ব্যবস্থাপক আমজাদ হোসেন বলেন, ‘নিয়ম মেনে মালামাল বুকিং নিয়েছি। কিন্তু প্রশাসন আসায় ওদের মোবাইল ফোনগুলো বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে।