• July 17, 2024

কবিরাজ বৈদ্য অংচিংনু মারমাকে সম্মাননা প্রদান

 কবিরাজ বৈদ্য অংচিংনু মারমাকে সম্মাননা প্রদান

খোকন বিকাশ ত্রিপুরা জ্যাক: পাহাড়ী কবিরাজ বৈদ্য অংচিংনু মারমা নামমাত্র মূল্যে পাহাড়ের বিভিন্ন রোগীদের হাজিরা ও গণনা করে থাকেন। খাগড়াছড়ি সদরস্থ পশ্চিম নারানখাইয়া এলাকায় নিজস্ব চেম্বারে রোগীদের বিভিন্ন ধরে চিকিৎসা প্রদান করে আসছেন। তাঁর চিকিৎসা সেবায় বহু রোগী সুস্থ্য হয়েছেন।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায় যে,খাগড়াছড়ি সদরস্থ মহাজন পাড়ার রুপান্ত চাকমা ও জোনাকী চাকমা’র মেয়ে জিকজিক চাকমা কয়েকদিন ধরে জটিল রোগে আক্রান্ত ছিলেন। পরে পাহাড়ী কবিরাজ বৈদ্য অংচিংনু মারমা’র নিকট কবিরাজি চিকিৎসা নিয়ে বর্তমানে সম্পূর্ণ হয়েছেন। এজন্য তাকে(অংচিংনু)-কে ঘরোয়া অনুষ্ঠান আয়োজন করে সম্মাননা স্বারক হিসেবে ক্রেস্ট তুলে দিতে দেখা যায় উপকারভোগী পরিবার ও জনবল বৌদ্ধ বিহার বিহারের অধ্যক্ষ জিনিতা ভান্তে।

এ ব্যাপারে রোগীর মা জোনাকী চাকমা জানান,আমার মেয়ে দীর্ঘদিন ধরে জটিল রোগে ভুগছিলেন। অনেক চিকিৎসা করিয়েছিলাম কোন সুফল পাইনি। পরে কোন উপায় না পেয়ে পাহাড়ী কবিরাজ বৈদ্য অংচিংনু মারমা’র নিকট কবিরাজি চিকিৎসা নিয়ে বর্তমানে সম্পূর্ণ হয়েছেন। তিনি রোগীর হাজিরার জন্য নামমাত্র মূল্য ১২০টাকা দিয়েই চিকিৎসা দিয়েছেন। এজন্য আমার পরিবার তার প্রতি চির কৃতজ্ঞ থাকবে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়,কবিরাজীর চেম্বারে রোগীদের উপচেপগা ভিড়। কৌতুহলবসত জিজ্ঞাসা করার পরে একজন রুমি নামে একজন রোগীর অভিভাবক জানান, আমার মেয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন ধরনের জটিল রোগে আক্রান্ত। এখানে কয়েকদিন যাবৎ কবিরাজী চিকিৎসা চলছে। আসার মেয়ে বর্তমানে সুস্থ হয়েছেন।

এছাড়াও, বিরল রোগে আক্রান্ত রোগীরা কবিরাজী চিকিৎসায় সুস্থ্য হয়ে খুশি মনে বাড়ী ফিরছে। অনেকে আনন্দে অশ্রু ফেলছেন। তারা যার কাছে চিকিৎসা নিচ্ছেন তিনি হলেন কবিরাজ বৈদ্য অংচিংনু মারমা।

জানা যায়,গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক অনুমোদিত পাহাড়ী বৈদ্য শাস্ত্রীয় বহুমুখী কল্যাণ সমিতি’র সদস্য কবিরাজ বৈদ্য অংচিংনু মারমা খাগড়াছড়িতে নামমাত্র ১২০টাকা মূল্যে রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। একই সাথে তিনি বিভিন্ন ধরনের ধর্মীয় ও মানবসেবামূলক কাজ করে যাচ্ছেন।

স্থানীয়রা জানান,,আমরা কবিরাজ অংচিংনু এর কার্যক্রম স্বচক্ষে দেখেছি,বাস্তবে দেখতে পাচ্ছি যে,উনার নিকট অনেক রোগী চিকিৎসা নিয়ে আরোগ্য লাভ করেছে। এখানে বিভিন্ন ধরনের জটিল রোগীদের চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়ে থাকে। যারা চিকিৎসা নিয়েছেন,তারা সবাই সুস্থ্য হয়েছেন।

উপকার পেয়েছেন এমন কয়েকজন রোগীর অভিভাবক বলেন, পেটের ব্যথায় আগে আমার স্বাভাবিক জীবন যাপন প্রায় বেঁকে বসেছিলো। এখানে কবিরাজের চিকিৎসা নিয়ে বর্তমানে আমি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়েছি। তিনি একজন খুবই দানশীল, মানবিক ও ধার্মিক।

কবিরাজী চিকিৎসায় সুস্থ হওয়া সঞ্জীবন চাকমা নামে একজন বলেন,আমি কয়েকবছর যাবৎ জটিল রোগে ভুগছিলাম। এখানে কবিরাজী চিকিৎসা নিয়ে বর্তমানে আমি পুরোপুরি সুস্থ্য আছি।

জানা যায়,গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অনুমোদিত,পাহাড়ী বৈদ্য শাস্ত্রীয় বহুমুখী কল্যাণ সমিতি (ইসমোওয়া)। নিবন্ধন নংঃ রাঙ্গামাটি -২৩৩/০৪। কবিরাজ ও বৈদ্য অংচিংনু মার্মা। কবিরাজ ও বৈদ্য অংচিংনু মার্মা এখন চিকিৎসা দিচ্ছে। চিকিৎসার স্থান: পশ্চিম নারানখাইয়া, ১নং ওয়ার্ড, খাগড়াছড়ি পৌরসভা, খাগড়াছড়ি সদর। প্রয়োজনে যোগাযোগ করতে পারবেন -880 1325580214 অথবা-01762305702 নাম্বারে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পাহাড়ী কবিরাজ ও বৈদ্য অংচিংনু মারমা বলেন,আমি নামমাত্র ১২০টাকার মূল্যে রোগীদের হাজিরা নিয়ে থাকি। আমি কোনদিন অর্থের চিন্তা করিনা। মানবসেবা ও ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকে এই সেবা দিয়ে থাকি। আমি মনে করি মানব সেবায় পরম ধর্ম। পাহাড়ী-বাঙ্গালী আমার চেম্বারে চিকিৎসা নিতে আসেন। আমি সাধ্যমতো তাদেরকে কবিরাজী চিকিৎসা সেবা দিয়ে থাকি।

তিনি আরও,আমার এখানে স্বামী স্ত্রীর অমিল,বিয়েতে বাঁধা,বিদেশ ভ্রমণ,ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নতি,চাকুরি,দূরের মানুষকে কাছে আনা, জ্বীন- পরী,বান-টোনা,আছর,পাগল,সন্তান হয় না,ক্যান্সার,লিভার,প্যারালাইসিস,হাঁপানী,হাঁড় ভাঙ্গা,জন্ডিস ও বিভিন্ন রোগের সমস্যা সমাধান করে থাকেন ।

পাহাড়ের আলো

https://pahareralo.com

সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সর্বশেষ সংবাদ সবার আগে জানতে চোখ রাখুন পাহাড়ের আলোতে।

Related post