খাগড়াছড়িতে কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তায় কৃষক সহায়কদের প্রশিক্ষণ

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: পার্বত্য জেলার কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা বিধানে সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষে কৃষক সহায়কদের মৌসুমব্যাপি প্রশিক্ষন শুরু হয়েছে। পাহাড়ি কৃষি গবে

খাগড়াছড়িতে স্বাস্থ্য বিধি মেনে মহান বিজয় দিবস উদযাপন
‘করোনা’ সচেতনতায় গুইমারা রিজিয়নে হোম কোয়ারেন্টাইন চালু
মাটিরাঙ্গায় আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস পালিত

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: পার্বত্য জেলার কৃষি ও খাদ্য নিরাপত্তা বিধানে সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষে কৃষক সহায়কদের মৌসুমব্যাপি প্রশিক্ষন শুরু হয়েছে। পাহাড়ি কৃষি গবেষণা কেন্দ্র সম্মেলন কক্ষে সোমবার বিকেলে প্রশিক্ষণ সূচনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য এডভোকেট আশুতোষ চাকমা। খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা টিটন খীসার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রশিক্ষনের উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে পাহাড়ি কৃষি গবেষনার মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মুন্সি রাশিদ আহমেদ, জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ শেখ আব্দুল মান্নান, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মোখলেসুর রহমান এবং ইউএনডিপির জেলা ব্যবস্থাপক প্রিয়তর চাকমা। স্বাগত বক্তব্যে প্রকল্পের জেলা কর্মকর্তা বলেন প্রকল্পের আওতায় জেলার ৯টি উপজেলা হতে সর্বমোট ১২৯ জন কৃষককে প্রশিক্ষণের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। প্রথম ব্যাচে ৩০ জন প্রশিক্ষনার্থী অংশগ্রহন করেছে পর্যায়ক্রমে অন্যান্য নির্বাচিত কৃষকগন ও প্রশিক্ষণ পাবেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এডভোকেট আশুতোষ চাকমা বলেন, কৃষকরা বর্তমানে তাদের উৎপাদিত পন্যর ন্যয্য মূল্য পাচ্ছে না। এ বছর আমের ফলন ভাল হওয়ার পরও কৃষকরা ভাল দাম পায় নি।তাই কৃষকরা যেন লাভবান হতে পারে সে লক্ষ্যে কৃষি পন্য বাজারজাত করন বিষয়ে কাজ করতে হবে। এছাড়াও ভিয়েতনাম হতে আগত সল্প মেয়াদের নারকেলের জাত ও  দেশি সুপরি চাষের মাধ্যেমেও কৃষকরা লাভবান হতে পারে। কৃষি,মৎস্য,প্রাণি সম্পদ বিভাগের পাশাপাশি এ প্রকল্পের মাধ্যেমে কৃষকদের দোরগোড়ায় কৃষি সেবা পৌছেঁদিতে কাজ করছে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ। এ বিষয়ে বর্তমান সরকার অত্যান্ত আন্তরিক।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের জনসংযোগ কর্মকর্তা চিংলামং চৌধুরী, ইউএনডিপির কৃষক মাঠ স্কুল এক্সপার্ট মিক্সন চাকমা, প্রকল্পের মাস্টার ট্রেইনার অতিশ চাকমা, জোসী চাকমা, মেহেদী হাসান, মনিটরিং এন্ড রিপোর্টিং অফিসার হ্লাচিং মং মারমা, মার্কেট ডেভলপমেন্ট ফেসিলিটের মোঃ রবিউল ইসলাম ও উপজেলা কৃষক মাঠ স্কুল সমন্বয়কারী বৈসা ত্রিপুরা।