খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদগুইমারাপাহাড়ের সংবাদমহালছড়িমাটিরাঙ্গামানিকছড়িলক্ষ্মীছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

খাগড়াছড়িতে সড়ক অবরোধ পালিত

স্টাফ রিপোর্টার:  খাগড়াছড়ি জেলার পাঁচ উপজেলা গুইমারা, মাটিরাঙ্গা, রামগড়, মানিকছড়ি ও লক্ষ্মীছড়িতে অংথোই মারমা ওরফে আগুন (৫২) হত্যার প্রতিবাদে ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপের ডাকা আধাবেলা সড়ক অবরোধ পালিত হয়েছে।  অবরোধ চলাকালে কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায় নি। বরোধের কারণে খাগড়াছড়ির সাথে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ছিল। তবে সকাল থেকে অবরোধের সমর্থনে গুইমারার বাইল্যাছড়ি ও রামগড় সড়কে রাস্তায় পিকেটিং-এর চেষ্টা করলেও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের তৎপরতায় পন্ড হয়ে যায়।

অবরোধ চলাকালে যেকোনো ধরনের সহিংসতা এড়াতে পাঁচ উপজেলার গুরুত্বপূর্ণ স্খানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েনের পাশাপাশি সেনাবাহিনী ও বিজিবির সদস্যদেরও টহল দিতে দেখা গেছে। গুইমারা থানার অফিসার্স উনচার্জ মুহাম্মদ রশীদ জানান, তার এলাকার বিভিন্ন সড়কে ৭টি স্থানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। স্থানীয় সেনাবাহিনীও মানুষের জানমালের নিরাপত্তায় পুলিশকে সহযোগিতা করে।

গত শুক্রবার ২ সেপ্টেম্বর সকালে গুইমারা উপজেলার দেওয়ান পাড়া এলাকায় প্রতিপক্ষের গুলিতে ইউপিডিএফ সংগঠক অংথোই মারমা আগুন নিহত হয়। এ ঘটনার প্রতিবাদে ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) খাগড়াছড়ি জেলার পাঁচ জেলায় আধাবেলা সড়ক অবরোধের ডাক দেয়।

 ৫ উপজেলায় ইউপিডিএফের আধাবেলা সড়ক অবরোধ সফলভাবে পালিত- ইউপিডিএফ

খাগড়াছড়ির গুইমারায় রাষ্ট্রীয় মদদপুষ্ট সন্ত্রাসী কর্তৃক ইউপিডিএফ সংগঠক অংথোই মারমা ওরফে আগুনকে (৫২)-কে হত্যার প্রতিবাদে  রবিবার (৪ সেপ্টেম্বর ২০২২) গুইমারা, মাটিরাঙ্গা, রামগড়, মানিকছড়ি ও লক্ষ্মীছড়ি উপজেলায় ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)-এর আধাবেলা সড়ক অবরোধ কর্মসূচি সফলভাবে পালিত হয়েছে। সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এ অবরোধ কর্মসূচি পালিত হয়। অবরোধ পালনকালে অপ্রীতিকর কোন ঘটনা ঘটেনি। অবরোধের সমর্থনে পিকেটাররা বিভিন্ন স্থানে রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে পিকেটিং করে অবরোধ কর্মসূচি সফল করেন।

অবরোধের কারণে উক্ত ৫ উপজেলায় দূরপাল্লার ও অভ্যন্তরীণ সড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল। খাগড়াছড়ি জেলা শহর থেকেও ঢাকা-চট্টগ্রাম-ফেনী গামী দূরপাল্লার কোন যানবাহন ছেড়ে যায়নি। অবরোধ কর্মসূচি সফল করায় ইউপিডিএফ’র খাগড়াছড়ি জেলা সংগঠক অংগ্য মারমা সকল যানবাহন মালিক-চালক, শ্রমিকসহ সর্বস্তরের জনসাধারণের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।