খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমানিকছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

গলায় ফাঁস দিয়ে ৪ সন্তানের জননীর আত্মহত্যা মানিকছড়িতে

মানিকছড়ি (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি: মানিকছড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন অভাবী সংসারের ৪ কন্যা সন্তানের জননী পেয়ারা বেগম(৩৫)।
পুলিশ ও চিকিৎসক সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গোদাতলী এলাকার মো. আবু তাহের এর অভাবী সংসারে ৪ কন্যা সন্তান।  বড় মেয়ে মাইনুর আক্তার(১৫)অকালে বাল্য বিয়ে দিয়েও স্বামীর সংসারে সুখ জুটেনি!বেড়াতে এসে প্রায় মা পেয়ারা বেগম এর কাছে স্বামীর সংসারের দুঃখ,বেদনা ও নির্যাতনের কথা বলে অঝোড়ে কানাকাটি করত। গত বৃহস্পতিবারও বিবাহিত মেয়ে  বেড়াতে এসে স্বামীর সংসারের অশান্তি ও বাল্য বিয়ের পরিনতি নিয়ে মায়ের সাথে ঝগড়া করে সবাই ঘুমিয়ে পড়ে। এরই ফাঁকে রাত আনুৃমানিক ১ টার পর বাড়ীর পাশে একটি গাছে উঠে পেয়ারা বেগম ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন!
বড় মেয়ে মাইনুর আক্তার আরো বলেন, মা ঘর থেকে বের হওয়ার পর অনেকক্ষণ ঘরে না ফিরায় আমরা ( বাবা, ছোট বোন) বের হয়ে খুঁজে না পেয়ে শব্দ পাই এবং চিৎকার দিলে প্রতিবেশিরা বেরিয়ে এসে গাছ থেকে নামিয়ে হাসপাতালে প্রেরণ করি।
চিকিৎসক ডা. মহি উদ্দীন বলেন, ফাঁস খাওয়া মহিলা হাসপাতালে আনার আগেই মারা গেছে।
থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শাহনূর আলম  ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, প্রাথমিকভাবে পরিবারের লোকজনের তথ্যে বড় মেয়ের বাল্য বিয়ের ফলে স্বামীর সংসারের অশান্তি নিয়ে মায়ের সাথে মেয়ের ঝগড়াঝাটি ওর পেয়ারা বেগম ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার তথ্য পাওয়া গেছে। যা আরো খতিয়ে দেখা হবে। লাশ মর্গে পাঠিয়ে সুরতহাল শেষে পরিবারকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।