• May 18, 2024

‘ছেলেধরা’ গুজবের বিষয়ে মানিকছড়ি থানা পুলিশের সচেতনতা সভা

আলমগীর হোসেন: ছেলে ধরা ও গলাকাটা সন্দেহে গণপিটুনি দিয়ে মানুষ হত্যা বিষয়ে জনগনকে সচেতন করার লক্ষ্যে নানা কর্মসূচি গ্রহণ করেছে মানিকছড়ি থানা  পুলিশ। এ বিষয়ে প্রতিদিন উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে স্কুল, কলেজ, বাজার পথসভা সমাবেশ চালিয়ে যাচ্ছে মানিকছড়ি থানা পুলিশ ।

মানিকছড়ি কলেজ, রানী নিহার দেবী সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়, বড়ডলু উচ্চবিদ্যালয়,করেজ জিয়েট উচ্চবিদ্যালয়, মানিকছড়ি বাজার, কেন্দ্রীয় মসজিদ, মহামুনি, তিনটহরী বাজার, গাড়ীটানা, বাটনাতলী, ডাইনছড়ি, যোগ্যাছোলা ইউনিয়নে ছেলে ধরা ও গলাকাটা সন্দেহে গণপিটুনি দিয়ে মানুষ হত্যা বিষয়ে জনগনকে সচেতন করার লক্ষ্যে  প্রচার চালিয়ে যাচ্ছে মানিকছড়ি থানা অফিসার ইনর্চাজ আমির হোসেন,

মানিকছড়ি থানা অফিসার ইনর্চাজ আমির হোসেন,বলেন, দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে তখন একটি কুচক্রি মহল পদ্মাসেতুতে মাথা প্রয়োজন ও ছেলে ধরা গুজব ছড়িয়ে ফায়দা লুটার চেষ্টা করছে। বাংলাদেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা ব্যাহত করতেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে প্রযুক্তির অপব্যবহার করছে। জনগনের মধ্যে গণসচেতনতা বৃদ্ধি ও বিশ্বাস স্থাপন করতে সকল সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় গুরুদের এগিয়ে আসার অনুরোধ জানিয়ে ফেইসবুক ব্যবহারকারীদের সচেতন থাকার পরামর্শ দেয়া হয়। গুজবে বিভ্রান্ত হয়ে, আইন নিজের হাতে তুলে নেয়া এবং গণপিটুনি দিয়ে মানুষ মারা এটি একটি ফৌজদারী অপরাধ।

ছেলে ধরা সন্ধেহে অথবা গুজব ছড়িয়ে দেশে অস্থিতিশীলতা তৈরি করা রাষ্ট্রবিরোধী কাজের সামিল এবং গুজব রটনাকারীদের আইনের আওতায় আনতে পুলিশের বিশেষ গোয়েন্দা দল অনুসন্ধানে কাজ করছে। যে কোন অনাকাঙ্খিত ঘটনা যেন না ঘটতে পারে ও অপপ্রচারকারীর বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে পুলিশের ব্যবস্থাপনায় লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। এছাড়াও ৯৯৯ এ কল করে যে কোন গুজব ও অসাধু প্রকৃতির মানুষ সন্দেহ হলে কল করে জানাতে অনুরোধ করা হচ্ছে।

পাহাড়ের আলো

https://pahareralo.com

সর্বাধিক জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল। সর্বশেষ সংবাদ সবার আগে জানতে চোখ রাখুন পাহাড়ের আলোতে।

Related post