দীঘিনালায় বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের র‌্যালি ও অালোচনা সভা

দীঘিনালা প্রতিনিধি:  "একটি পরিকল্পিত পরিবার গঠনের জন্যে নিজেদের সচেতনতাই যথেষ্ট। স্বামী স্ত্রীর সচেতনতা ছাড়া পরিকল্পিত পরিবার গঠন করা সম্ভব নয়। প্রত্য

রামগড়ে কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে ফলজ চারা বিতরণ
মহালছড়িতে রুপন স্মৃতি ব্যাডমিন্টন টুর্ণামেন্ট
মানিকছড়িতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শ্রমিক নিহত

দীঘিনালা প্রতিনিধি:  “একটি পরিকল্পিত পরিবার গঠনের জন্যে নিজেদের সচেতনতাই যথেষ্ট। স্বামী স্ত্রীর সচেতনতা ছাড়া পরিকল্পিত পরিবার গঠন করা সম্ভব নয়। প্রত্যন্ত গ্রাম ও দূর্গম পাহাড়ী এলাকায় সচেতনতা বৃদ্ধি করার লক্ষে পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের লোকজন ছাড়াও স্থানীয় শিক্ষক, পাড়া প্রধান ধর্মীয় শিক্ষক এবং কাজীরা দ্বায়িত্ব পালন করতে হবে। মনে রাখতে হবে, পরিকল্পিত পরিবারই পরিকল্পিত সমাজ”

বুধবার উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের অালোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নব কমল চাকমা।

“পরিকল্পিত পরিবার সুরক্ষিত মানবাধিকার,” এই প্রতিপাদ্য বিষয় নিয়ে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসের অালোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ শেখ শহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে  বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, ভাইস চেয়ারম্যান সুসময় চাকমা, মহিলা ভাইসচেয়ারম্যান গোপাদেবী চাকমা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডাঃ একরামুল অাযম, দীঘিনালা সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অাশাপূর্ণ চাকমা, সূর্যের হাসি ক্লিনিকের ম্যানেজার তরুণ জ্যোতি চাকমা প্রমূখ। সভায় জনসংখ্যা দিবসের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা নিটু দেওয়ান। সভায় স্থানীয় কাজি, বিভিন্ন মসজিদের  ঈমাম, জনপ্রতিনিধি বিভিন্ন পাড়ার কার্বারীগণ অংশ গ্রহণ করেন।

সভায় বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করায়, উপজেলার ১ নং মেরুং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ রহমান কবির রতন, মেরুং ইউনিয়ন পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রের  উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসার অসীম বড়ুয়া, পরিবার কল্যাণ পরিদর্শীকা বিন্দু বালা চাকমা, মেরুং ইউনিয়ন পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক শুক্র মোহন চাকমা এবং মেরং ইউনিয়ন পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রকে শ্রেষ্ঠ ঘোষণা করে সম্মাননা ক্রেস্ট এবং সনদপত্র বিতরণ করা হয়।

এর অাগে উপজেলা কমাপ্লেক্স থেকে একটি শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি উপজেলার থানা বাজার প্রদক্ষিণ করে শিল্পকলা একাডেমিতে গিয়ে অালোচনা সভায় মিলিত হয়।