খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদপাহাড়ের সংবাদমানিকছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

মানিকছড়িতে এইচএসসি পরীক্ষার্থীর বহিস্কার নিয়ে বিভ্রান্তি

মানিকছড়ি প্রতিনিধি: মানিকছড়ি গিরিমৈত্রী ডিগ্রি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সাথে বই পাওয়ার ঘটনায় নির্বাহী ম্যাজিট্রেট পরীক্ষার্থীকে বহিস্কার করার নির্দেশ দিলেও কেন্দ্র সচিব তা আমলে নেয়নি। ফলে ওই পরীক্ষার্থী পুরো সময় পরীক্ষা দিয়েছে। এ নিয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হয়েছ।

নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে, ১২এপ্রিল এইচএসসি পরীক্ষার বিজ্ঞান বিভাগের জীব বিজ্ঞান পরীক্ষায় মানিকছড়ি গিরিমৈত্রী ডিগ্রি কলেজ কেন্দ্রে ৩০১ কক্ষে(অনিয়মিত) পরীক্ষার্থী মো. শাহ আলম রোল নং ১১৯৬০২ রেজি নং ১২১৪৩১৪৮১৫ বই নিয়ে হলে প্রবেশ করলে হল পরিদর্শক, তদারকি কর্মকর্তা,ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার উপস্থিতিতে নির্বাহী ম্যাজিট্রেড ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আহ্সান উদ্দীন মুরাদ সাথে বই রাখার অপরাধে বহিস্কার করার নির্দেশ দেন কেন্দ্র সচিবকে। কিন্তু কেন্দ্র সচিব ওই পরীক্ষার্থীকে বহিস্কার না করে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ দেন। এ বিষয় জানাজানির পর কেন্দ্র সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা, হল পরিদর্শক, তদারকি কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীদের মাঝে বিভ্রান্তির সৃষ্ঠি হয়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে কেন্দ্র সচিব মংচাইঞো মারমা পরীক্ষার্থী বহিস্কারের বিষয় অস্বীকার করে বলেন, ছাত্রের কাছে বই পাওয়ার বিষয়টি সঠিক নয়, বই ছিল শিক্ষক টেবিলে। তাই তাকে বহিস্কার করিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কেন্দ্রের তদারকি কর্মকর্তা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের একাডেমিক সুপাভাইজার রেহেনা মোস্তফা ও ভিজিলেন্স কর্মকর্তা মো. আবদুল মান্নান পাটোয়ারী পরীক্ষার্থীর নিকট বই পাওয়ার সত্যতা নিশ্চিত করেন। পরে নির্বাহী ম্যাজিট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আহ্সান উদ্দীন মুরাদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পরীক্ষার্থীর নিকট বই পাওয়ার অপরাধে তাকে বহিস্কারের জন্য কেন্দ্র সচিবকে নির্দেশ দেয়া হলেও কেন্দ্র সচিব তা করে পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষার সুযোগ দেওয়ার ঘটনা সর্ম্পকে শিক্ষাবোর্ডকে বিষয়টি লিখিতভাবে জানানো হবে।