খাগড়াছড়িখাগড়াছড়ি সংবাদনির্বাচন বিবিধপাহাড়ের সংবাদমহালছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

যে কারণে নির্বাচনী উত্তাপ নেই মহালছড়ির দুই ইউনিয়নে

মহালছড়ি (খাগড়াছড়ি) প্রতিনিধি: আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন মহালছড়িতে ২৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে মনোনয়ন পত্র জমা ও বাছাই পর্ব শেষ হয়েছে। মনোনয়ন পত্র জমা ও বাছাই পর্ব শেষ হওয়ার পর উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, মুবাছড়ি ইউনিয়ন ও ক্যায়াংঘাট ইউনিয়নে ১ চেয়ারম্যানসহ ১৬ জন প্রার্থী একক ভাবে মনোনয়ন জমা পড়েছে। ফলে ওই এলাকায় তফসিল ঘোষণার পর কিছুটা নির্বাচনী উত্তাপ দেখা গেলেও বর্তমানে প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী না থাকায় নির্বাচনী উত্তাপ কমে গেছে।

নির্বাচনী কার্যালয়ের তথ্য সূত্রে জানা গেছে, মুবাছড়ি ইউনিয়নে ৮ জন, ক্যায়াংঘাট ইউনিয়নে ৮ জন প্রার্থী এককভাবে মনোনয়ন জমা পড়েছে। একক প্রার্থী হিসেবে যারা মনোনয়ন জমা দিয়েছেন তাঁরা হলেন, সংরক্ষিত মহিলা আসনে কামনা চাকমা ও শ্যাংথুই মারমা ও সাধারণ সদস্য পদে, সুজিত কুমার চাকমা, যুদ্ধ রঞ্জন চাকমা, রিপন চাকমা, চিকু চাকমা, সাধন পূর্ণ চাকমা, শিপন চাকমা। একইভাবে ক্যায়াংঘাট ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে রুপেন্দু দেওয়ান ও সাধারণ সদস্য পদে মহেন্দ্র চাকমা, জীবন বিকাশ চাকমা, হেমন্ত চাকমা, সন্তোষ ময় চাকমা, কৃপণ চাকমা, দীপ্ত চাকমা ও সুশীল বিকাশ।

ক্যায়াংঘাট ইউনিয়নের এক ভোটার দীনেশ চাকমা বলেন, ক্যায়াংঘাট ইউনিয়নে বিশেষ করে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্ধি না থাকায় ভোটাদের মাঝে নির্বাচনী উত্তাপ নেই। প্রতিবারে নির্বাচনের সময় ভোটারদের মাঝে উৎসব মূখর একটা পরিবেশ সৃষ্টি হতো কিন্তু এবারে তা পরিলক্ষিত হচ্ছেনা। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী না থাকলে ভোটারদের মাঝে আমেজ থাকেনা।
আগামী ১১ নভেম্বর প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ এবং ২৮ নভেম্বর ভোট গ্রহন।