পাহাড়ের সংবাদরাঙ্গামাটি সংবাদলংগদুশিরোনামস্লাইড নিউজ

রাঙ্গামাটির লংগদুতে ‘গণহত্যা দিবস এবং ‘মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপিত  

পাহাড়ের আলো: যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে রাঙ্গামাটি জেলার লংগদু উপজেলার বাইট্টাপাড়াস্থ ৩৬ আনসার ব্যাটালিয়নে ২৫ মার্চ, শুক্রবার ‘গণহত্যা দিবস’ এবং ২৬ মার্চ, শনিবার ‘মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস’ পালিত হয়েছে।

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী সদর দপ্তর কর্তৃক ঘোষিত অনুষ্ঠানসূচির আলোকে ২৫ মার্চ শুক্রবার বাদ জুম’আ ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে শাহাদাতবরণকারী সকলের আত্মার শান্তি এবং আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উত্তরোত্তর অগ্রগতি কামনা করে ব্যাটালিয়নের জামে মসজিদে বিশেষ মোনাজাতের ব্যবস্থা করা হয়। একই সাথে রাত ৯:০০ ঘটিকা হতে ৯:০১ ঘটিকা পর্যন্ত বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ রেখে ০১ মিনিট প্রতীকী ব্ল্যাকআউট পালন করা হয়। ‘মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস’ উপলক্ষ্যে ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক কর্তৃক সংক্ষিপ্ত আলোচনার মাধ্যমে জাতির উদ্দেশ্যে মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রদত্ত বাণী পাঠ করে শুনানো হয়।

দিবসটি উদযাপন উপলক্ষ্যে অন্যান্য অনুষ্ঠানের মধ্যে ছিল- দিবসটির তাৎপর্য তুলে ধরে সুদৃশ্য স্থানে ১৫’´৯’ সাইজের প্যানাফ্ল্যাক্স ব্যানার স্থাপন, সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা ও ইউনিট পতাকা উত্তোলন, সকাল ৮:০০ ঘটিকায় উপজেলাস্থ কেন্দ্রীয় শহীদ বেদিতে পুস্পস্তবক অর্পণ, সকাল ১০:৩০ ঘটিকায় ‘বাংলার মাটি বাংলার জল ও স্বাধীনতা আমার স্বাধীনতা’ শীর্ষক বিশেষ প্রমাণ্যচিত্র প্রদর্শন, বাদ যোহর ব্যাটালিয়নের জামে মসজিদে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদগণের আত্মার শান্তি ও মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাতের ব্যবস্থা, ব্যাটালিয়ন আলোকসজ্জিতকরণ, দুপুর ১:৩০ ঘটিকায় সকল পদবির সদস্যদের অংশগ্রহণে প্রীতিভোজের আয়োজন। দিবসসমূহের তাৎপর্য তুলে ধরে ব্যাটালিয়ন অধিনায়কের বক্তব্য প্রদান ও উল্লিখিত অনুষ্ঠানমালায় সকল পদবির সদস্যদের স্বতঃস্ফূর্ত ও প্রাণোচ্ছল অংশগ্রহণ ছিল প্রণিধানযোগ্য।