২মাস পর বাড়ি আসলেন ফুটবল কন্যা মনিকা চাকমা, মোটর শোভাযাত্রায় বরণ

২মাস পর বাড়ি আসলেন ফুটবল কন্যা মনিকা চাকমা, মোটর শোভাযাত্রায় বরণ

স্টাফ রিপোর্টার: প্রায় ২মাস পর নিজ বাড়ি লক্ষ্মীছড়ির সুমন্ত পাড়ায় আসলেন ফুটবল কন্যা মনিকা চাকমা। শুক্রবার বিকেলে খাগড়াছড়ি থেকে মানিকছড়ি মহামুনি আসলে তা

লক্ষ্মীছড়ি জোন কমান্ডার’স কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু
খাগড়াছড়ি সরকারি হাইস্কুল মাঠ এখন খেলার উপযোগী
মানিকছড়িতে বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট, ফাইনালে একতা ও সেতুবন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার: প্রায় ২মাস পর নিজ বাড়ি লক্ষ্মীছড়ির সুমন্ত পাড়ায় আসলেন ফুটবল কন্যা মনিকা চাকমা। শুক্রবার বিকেলে খাগড়াছড়ি থেকে মানিকছড়ি মহামুনি আসলে তাকে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রায় লক্ষ্মীছড়ির শত শত মানুষ সাফ চ্যাম্পিয়ন ফুটবলার মনিকা চাকমাকে অভ্যর্থনা জানায়।

ব্যান্ড দলের বাদ্যের তালে তালে ফুটবল তারকা মনিকা চাকমাকে মগাইছড়ি, ময়ূরখীল বাজার এলাকা ও উপজেলা সদর প্রদুক্ষিন করে পৌছে দেয়া হয় যাতন্দ্র কার্বারী পাড়া পাকা রাস্তা পর্যন্ত। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এর গাড়ি থেকে নেমে বাতি পথ যেতে হয় মোটরসাইকেল এবং শেষ পথটুকু পায়ে হেটে। মনিকা চাকমার সঙ্গে একই গাড়িতে ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান বাবুল চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান সুমনা চাকমা ও তাঁর বাবা বিন্দু কুমার চাকম। মোটরসাইকেল বহরে মনিকা চাকমাকে সম্মাননা দেখাতে ইউপি চেয়ারম্যানগনসহ স্থানীয় মোটরবাইকার ও গণ্যমান্য ব্যক্তিরা শোভাযাত্রায় অংশ নেন। মনিকা চাকমা গাড়ি থেকে নামার সাথে সাথে স্থানীয় মানুষ ও স্বজনরা জড়িয়ে ধরে তাঁর প্রতি উষঞ ভালোবাসার অনুভুতি প্রকাশ করেন।

এসময় ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেন এলাকার মানুষ। মনিকা চাকমা এসময় সাংবাদিকের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, পায়ে হেঁটে গেলেও আমার কষ্ট হবে না-কারণ অনেক দিন পর মা-বারার কাছে যাচ্ছি। মানুষের ভালোবাসা দেখে আমার খুব ভালো লাগছে। রাঙ্গামাটি ও খাগড়াছড়িতে যেভাবে সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে তারও প্রশংসা করেন মনিকা চাকমা।

উপজেলা ক্রিড়া সংস্থার উদ্যোগে আগামী রোববার উপজেলার মুক্তমঞ্চে এই ফুটবল তারকাকে সংবর্ধনা দেয়া হবে বলে জানা গেছে।