কাউখালীতে চাঁদাবাজ ও সাজেকে অস্ত্রসহ ইউপিডিএ নেতা আটক

রাঙামাটি প্রতিনিধি: রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলা সাজেক ইউনিয়ন থেকে অস্ত্র-গুলিসহ রিমেন চাকমা (২০) নামের প্রসীত গ্রুফের এক কালেক্টরকে আটক করেছে যৌথবাহিনী।

রামগড়ে করোনা প্রতিরোধ সেনাবাহিনীর কার্যক্রম অব্যাহত
জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে পানছড়িতে প্রেস ব্রিফিং
আলুটিলায় মালবাহী গাড়ি মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত:৩

রাঙামাটি প্রতিনিধি: রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলা সাজেক ইউনিয়ন থেকে অস্ত্র-গুলিসহ রিমেন চাকমা (২০) নামের প্রসীত গ্রুফের এক কালেক্টরকে আটক করেছে যৌথবাহিনী। সোমবার (২৬নভেম্বর) ভোরে সাজেকের করল্যাছড়ি এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে একটি এলজি, এক সেট কম্বাইন্ড পোশাক, ২ রাউন্ড কার্তুজ গুলি, চাঁদা আদায়ের রশিদ ও নগদ ২লক্ষ সাড়ে ১৪হাজার টকা উদ্ধার করা হয়েছে।

যৌথবাহিনী সূত্রে জানানো হয়- ইউপিডিএফ কালেক্টর রিমেন করল্যাছড়ি গ্রামে ডঙ্গু চাকমার বাড়িতে অবস্থান করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে যৌথবাহিনী অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করে। রিমেন ওই এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে চাঁদাবাজি করে আসছে বলে জানান সংশ্লিষ্ঠ সূত্রটি। চাঁদাবাজির নগদ টাকাসহ এক সন্ত্রাসীকে আটক করেছে সেনাবাহিনী। সোমবার(২৬নভেম্বর) ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সাজেকের করল্ল্যাছড়ি এলাকার ডংগু চাকমার বাড়ি থেকে রিমেন চাকমা(১৮)নামে ইউপিডিএফ’র এই কালেক্টরকে আটক করা হয়। সাজেক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল আনোয়ার জানান জানান- আটক রিমেনের বিরুদ্ধে দু’টি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

কাউখালীতে ইউপিডিএফ’র চাঁদাবাজ আটক ৪

রাঙামাটি কাউখালী উপজেলায় প্রসীত গ্রুফ নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ’র কালেক্টরসহ চারজনকে আটক করেছে যৌথবাহিনী। সোমবার (২৬ নভেম্বর) দুপুরে কাউখালী থানা সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। আটককৃত ব্যক্তিরা হলেন-উপজেলার নাভাঙ্গা পাড়ার যতীন বিকাশ চাকমার ছেলে সমরেশ চাকমা ওরফে স¤্রাট (২৮), কচুখালী এলাকার লক্ষিধন চাকমার ছেলে লিটন চাকমা (২০), ছোট নাভাঙ্গা পাড়ার জ্যেতিময় চাকমার ছেলে এডিশন চাকমা (২৪) এবং ফটিকছড়ি ইউনিয়নের কলাবুনিয়া এলাকার শশী ভূষণ চাকমার ছেলে মেনশন চাকমা (২৫) এদের মধ্যে সমরেশ চাকমা প্রতীত গ্রুফ নেতৃত্বধীন ইউপিডিএফ’র কালেক্টর এবং তার বিরুদ্ধে রাঙামাটি কোতয়ালী থানায় বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে মামলা রয়েছে। যার মামলা নং – (২৬৩/১৪)।

যৌথ বাহিনী সূত্রে জানা গেছে- গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ২৫ নভেম্বর রোববার গভীর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কাউখালী সরকারি ডিগ্রি কলেজ এলাকায় একটি  বাড়ীতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাদের সোমবার দুপুরে কাউখালী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। কাউখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনজুর আলম জানান- আটককৃত সমরেশ ইউপিডিএফ’র চিহ্নিত কালেক্টর। তার বিরুদ্ধে রাঙামাটি কোতয়ালী থানায় একটি বিস্পোরক মামলা রয়েছে। বাকী তিনজনের পরিচয় জানার চেষ্টা এখনো চলছে। সবকিছু প্রক্রিয়া শেষে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।