মানিকছড়িতে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে স্কুল ছাত্রীর বাল্য বিয়ে বন্ধ

স্টাফ রিপোর্টার: মানিকছড়িতে এক স্কুল ছাত্রীর বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন। ফলে বাল্য বিয়ের কূফল থেকে আপাদত মুক্তি পেল স্কুল ছাত্রী। পুলি

মানিকছড়িতে ফল বাগান ব্যবস্থাপনা বিষয়ক প্রশিক্ষণ ও চারা বিতরণ
ফাঁস দিয়ে এক যুবকের আত্মহত্যা মাটিরাঙ্গায়
পার্বত্য চট্টগ্রামের নারীর নিরাপত্তার জন্য শান্তিচুক্তি’র বাস্তবায়ন জরুরী

স্টাফ রিপোর্টার: মানিকছড়িতে এক স্কুল ছাত্রীর বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন। ফলে বাল্য বিয়ের কূফল থেকে আপাদত মুক্তি পেল স্কুল ছাত্রী।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার‘রাণী নিহার দেবী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রীর বিয়ের আয়োজন করেন অভিভাবক মো. আবদুস সোবহান। গ্রাম্য মোড়লদের শলাপরামর্শে অভিভাবক মেয়ের বিয়ের আয়োজন সম্পন্ন করেন। শুক্রবার ১১ মে বাদজুমা শরীয়ত মোতাবেক মসজিদে বর-কনের উপস্থিতিতে বিয়ের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন ছিল। বিয়ে শেষে কনের বাড়িতে খাওয়া-দাওয়ার সব আয়োজন ঠিকটাক। কিন্তু এরই মধ্যে বিষয়টি প্রশাসনের নজরে আসে। প্রশাসন প্রথমে মসজিদে নজরদারী বাড়িয়ে এর সত্যতা নিশ্চিত হন।

অফিসার ইনচার্জ মুহাম্মদ রশীদ কনের বয়স সর্ম্পকে বরের অভিভাবকে জানানোর পর বর পক্ষও এ বিয়েতে অসম্মতি জানায়। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) রুবাইয়া আফরোজ কনের পিত্রালয় চেঙ্গছড়ায় গিয়ে কনের অভিভাবকের মুচলেকা নিয়ে বিয়ে বন্ধ করে দেন।