রামগড়ের নাকাপায় বসতবাড়িতে আগুন লাগার ঘটনায় থানায় জিডি

রামগড় প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় উপজেলার পাতাছড়া ইউনিয়নস্থ নাকাপায় এক বসত বাড়িতে আগুন লেগে সর্বস্ব পুড়ে গেছে। এ ঘটনায় জুনাব আলী বাদী হয়ে রামগড় থা

গুইমারা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে শীত বস্ত্র বিতরণ
মহালছড়ি উপজেলা আওয়ামীলীগ’র কাউন্সিল সম্পন্ন
মহালছড়িতে অগ্নিকান্ডের ঘটনার নৈপথ্যে আসলে কারা?

রামগড় প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় উপজেলার পাতাছড়া ইউনিয়নস্থ নাকাপায় এক বসত বাড়িতে আগুন লেগে সর্বস্ব পুড়ে গেছে। এ ঘটনায় জুনাব আলী বাদী হয়ে রামগড় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। যাহার নং- ১১৫১।
জানা গেছে, ঢাকা-খাগড়াছড়ি আঞ্চলিক সড়কের পাশে নাকাপা ঢালু টিলার নীচে অবস্থিত স্থানীয় আব্দুর মান্নান ওরফে জুনাব আলীর (৫৭) আধাপাকা টিনের ঘরটিতে গত শনিবার (২৫ আগষ্ট) দুপুর আনুমানিক ১২টার দিকে আগুন লেগে বাড়ির আসবাবপত্রসহ সবকিছু পুড়ে নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। আগুন লাগার সময়ে বাড়িতে কেউ ছিলেন না।

প্রত্যেক্ষদর্শী মতে, রাস্তা থেকে আগুনের লেলিহান শিখা দেখে পথচারীরা এগিয়ে গেলেও ততক্ষনে বাড়ির সকল আসবাবপত্র পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। কোনরকম সরঞ্জামাদি আগুনের হাত থেকে রক্ষা করা সম্ভব হয়নি। খবর পেয়ে রামগড় ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের কর্মীরা ছুটে আসলেও নেভানোর মততো অবশিষ্ট কিছুই তখন ছিলোনা। প্রাথমিকভাবে তাদের ধারণা বিদ্যুতের সট-সার্কিট থেকে আগুনে সুত্রপাত হতে পারে। এছাড়া ঘটনার একদিন পর রবিবার দিপুরে রামগড় উপজেলা চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম ভূইয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন এবং ভুক্তভোগী জুনাব আলীকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন। এদিকে স্থানীয় নাকাপা ইয়ুথ ফোরামের পক্ষ হতেও ভুক্তভোগী পরিবারকে সহযোগিতা করা হয়েছে বলে জানা গেছে।

ভুক্তভোগী পরিবার প্রধান জুনাব আলী এই প্রতিবেদককে জানান, আমরা সবাই মিলে আমার শশুর বাড়িতে বেড়াতে গেছি, এমতাবস্থায় দুপুরে জানতে পারি আগুনে আমার বসতবাড়ি পুড়ে গেছে। বাড়িতে থাকা আমার ও আমার স্ত্রী সহ আমাদেও ৬ সন্তানের জন্মসনদ, আইডি কার্ড, জমির দলিল, রেশন কার্ড ও নগদ টাকা-স্বর্নালঙ্কারসহ সর্বমোট প্রায় ৫ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।