চট্টগ্রাম সংবাদফটিকছড়িশিরোনামস্লাইড নিউজ

ভুজপুরের পিতা-পুত্রকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর প্রতিবাদে মানববন্ধন

ফটিকছড়ি প্রতিনিধি: ভুজপুরে পিতা-পুত্রকে ইয়াবা দিয়ে ফাঁসানোর প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্টিত হয়েছে। নিরীহ রাবার শ্রমিক মাসুদ মিয়া ও তার ছেলেকে ইয়াবা মামলায় ফাঁসিয়ে জায়গা জমির বিরোধকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার অপচেষ্টা করছে বলে দাবী করেন বক্তারা।

তারা উদ্বতন কর্তৃপক্ষের নিরপেক্ষ তদন্ত দাবী করেন। গতকাল সকালে উপজেলার দাঁতমারা ইউনিয়নের হোসইন্যারখীল এলাকায় ভুক্তভোগীর পরিবার ও গ্রামবাসীর উদ্যোগে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় মাসুদ মিয়ার স্ত্রী ফাতেমা আকতার অভিযোগ করে বলেন, স্থানীয় ইয়াবা কারবারীর সাথে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বিজিবির কতিপয় ব্যক্তিকে অর্থের বিনিময়ে ওই রাতে তাদের বাড়ীতে অভিযান চালায়। এসময় জিজ্ঞাসাবাদের কথা বলে তাঁর স্বামী রাবার শ্রমিক মাসুদ মিয়াকে হেয়াকোঁ বিজিবি ক্যাম্পে নিয়ে রাতভর শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে একটি হাত ভেঙ্গে দেয়ার অভিযোগও করেন তিনি।

পরে তার কাছে ৩৯৪ পিস ইয়াবা পেয়েছে বলে তাকে পুলিশের মাধ্যমে মাদক মামলায় চালান দেয়া হয়। মানববন্ধনে মাসুদ মিয়ার শ্যালক আবু তাহের বলেন, আটকের সময় বিজিবি কথিত ইয়াবা উদ্ধারে স্থানীয় কাউকে স্বাক্ষী করেনি। কিন্তু পরের দিন এসে তাদেরকে স্বাক্ষী দিতে চাপ প্রয়োগ করে। এসময় অন্যান্যের মধ্যে গ্রামের সর্দার আবদুল আলিম, বাদশা মিয়া,জয়নাল আবেদিন, আবু তাহের,আবুল হোসেনসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। এ ব্যাপারে ৪৩ বিজিবি ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লে.কর্ণেল আনোয়ারুল মাযহার সাংবাদিকদের বলেন, আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ইয়াবা গুলো মাসুদ মিয়ার দোকানের ভিতর থেকে পাওয়া গেছে। এঘটনায় তার ছেলেও জড়িত ছিল।

সে বিজিবির উপস্থিতি টেরপেয়ে পালিয়ে গেছে। বিজিবি তাকে মারধর করে হাত ভেঙ্গে দেয়ার অভিযোগ মিথ্যা। তার হাতটি রোড় এক্সিডেন্টে আগে থেকে ভাঙ্গা ছিল। আর বিজিবি যেনতেন বাহিনী নয়, যে সাধারণ মানুষকে মামলা হামলা দিয়ে হয়রানি করবে। এগুলো বিজিবির বিরুদ্ধে অপপ্রচার মাত্র।